ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে একই পরিবারের পাঁচজনকে কুপিয়ে ও আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে ১৩ জনকে যাবজ্জীবন ও দুজনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। গতকাল বুধবার দুপুরে বিশেষ দায়রা জজ আদালতের হাকিম মোহাম্মদ আমীর উদ্দিন এ রায় দেন।
যাবজ্জীবন কারাদণ্ড পাওয়া ব্যক্তিরা হলেন: হক মিয়া, মো. সিরাজুল, মানিক মিয়া, আজিজুল, আবদুস ছাত্তার, আবদুল বারেক, নূর মোহাম্মদ, আবুল কাসেম, ফজুলল করিম, আবু তাহের, আবুল খায়ের, গফুর উদ্দিন ও রমজান। একই সঙ্গে তাঁদের ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। ১০ বছর করে কারাদণ্ড পাওয়া ব্যক্তিরা হলেন জসিম উদ্দিন ও আবদুর রাজ্জাক। তাঁদের ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও তিন মাস করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।
মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণ থেকে জানা যায়, ১৯৯৭ সালে হালুয়াঘাট উপজেলার গোপীনগর গ্রামে গরুর ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে জালাল উদ্দিনের সঙ্গে হোসেন আলী মণ্ডলের বিবাদ হয়। ওই বছরের মে মাসে হোসেন আলী মণ্ডলের নেতৃত্বে শতাধিক লোক জালাল উদ্দিনের বাড়িতে হামলা করেন। হামলাকারীরা জালাল উদ্দিনের ছেলে আলমগীর, ভাই আবদুল মোতলেব, নুরুল ইসলাম, আবদুর রশিদ ও ভাতিজা শাজাহানকে রামদা, বল্লম ও কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে এবং ঘরে আগুন দিয়ে হত্যা করেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন