default-image

মাতৃভাষার বিকাশের জন্য এর চর্চা করা, গবেষণা করে বই লেখা এবং অনুবাদ করা দরকার। এ বিষয়ে পাঠ্যবই, সহায়ক বা রেফারেন্স বই লেখা দরকার। সেন্ট্রাল উইমেন্স ইউনিভার্সিটি আয়োজিত এক ওয়েবিনারে এসব কথা বলেন ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী।

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রোববার সেন্ট্রাল উইমেন্স ইউনিভার্সিটি ওই ওয়েবিনারের আয়োজন করে। সন্ধ্যা সাতটায় ‘মাতৃভাষা ও শিক্ষা, বাংলাদেশে’ শীর্ষক ওই ওয়েবিনারে একক আলোচক হিসেবে ছিলেন সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী। সভাপ্রধান ছিলেন সেন্ট্রাল উইমেন্স ইউনিভার্সিটির উপাচার্য পারভীন হাসান।

বিজ্ঞাপন

সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘বাংলা ভাষা অন্য অনেকগুলো ভাষা থেকে সম্পদ নিয়ে সমৃদ্ধ হয়েছে। ইংরেজি ভাষাও তাই। আমরা বিভিন্ন ভাষা ও সাহিত্য থেকে নিজেদের সমৃদ্ধ করব।’

সিরাজুল ইসলাম আরও বলেন, ‘মাতৃভাষার পাশাপাশি দ্বিতীয় একটি ভাষা শেখা দরকার। সব দেশেই তা আছে। আমরা যত বেশি ভাষা শিখব, তত সমৃদ্ধ হব। বাংলা আমাদের মাতৃভাষা; এটি থাকবে। ঐতিহাসিকভাবে ইংরেজি আমাদের দ্বিতীয় ভাষা।

ইংরেজি ভাষা একটি বাতায়নের মতো; পৃথিবীর অনেক ভাষার জ্ঞান তারা ইংরেজিতে নিয়ে এসেছে। তাই আমাদের ইংরেজিও শিখতে হবে।’

অধ্যাপক পারভীন হাসান বলেন, ‘বাংলা ভাষার মান কমে যাচ্ছে। প্রতিদিন ভাষার এমন প্রয়োগ দেখি, যা দেখলে মানসম্মত মনে হয় না। ভাষার ব্যবহারে আমাদের আরও সতর্ক হতে হবে। সাহিত্যচর্চা করতে হবে। নিজের ভাষাসহ অন্য আরও ভাষা শেখাও দরকার। তবে যে ভাষাই শিখি, তার চর্চা শুদ্ধ হতে হবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ইলিয়াস আহমেদ, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক জায়েদ উল এহসান।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন