টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে পিকআপের চাপায় গতকাল শনিবার দশম শ্রেণির এক ছাত্র নিহত হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে দুটি স্থানে গত শুক্রবার সড়ক দুর্ঘটনায় আরও দুজন নিহত হয়েছে।
মির্জাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ওই ছাত্রের আহাদ উদ্দিন। সে উপজেলা সদরের বাওয়ার রোড এলাকার ব্যবসায়ী নাজিম উদ্দিনের ছেলে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, গতকাল দুপুর ১২টার দিকে আহাদ মোটরসাইকেলে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পুরাতন সড়ক দিয়ে বাইমহাটী থেকে বাসায় আসার পথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ওপর পড়ে যায়। এ সময় পেছন থেকে একটি পিকআপ তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। সে উপজেলা সদরের মির্জাপুর সদয় কৃষ্ণ মডেল উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্র ছিল। মির্জাপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শফিকুল আলম বলেন, নিহতের লাশ আইনি প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইল উপজেলার পশ্চিম কুট্টাপাড়া এলাকায় গত শুক্রবার রাত তিনটার দিকে একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ট্রাকের নয় আরোহী গুরুতর আহত হন। হাইওয়ে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। গতকাল সকাল ১০টার দিকে মঞ্জুর আলম (৩৫) নামের একজন শ্রমিক মারা যান। তিনি শেরপুরের নকলা উপজেলার বেপারচড় গ্রামের বাসিন্দা। গত শুক্রবার বিকেল পাঁচটার দিকে সরাইল-নাসিরনগর সড়কের উচালিয়াপাড়া এলাকায় বালুবোঝাই একটি ট্রলি উল্টে যায়। শাহবাজখান (৫৫) নামের এক বৃদ্ধ এর নিচে চাপা পড়ে গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে সন্ধ্যায় তিনি মারা যান। তিনি উচালিয়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0