জিল্লুল হাকিম বলেন, বাজেটে মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বৃদ্ধি করা হয়েছে। এই ভাতা বৃদ্ধি অবশ্যই অভিনন্দনযোগ্য। যাঁরা প্রকৃত ‍মুক্তিযোদ্ধা, তাদের ভাতা বৃদ্ধি করা হোক। ২০ হাজার কেন, এই ভাতা আরও বেশি করা হোক।

এই সাংসদ বলেন, ‘এখন মুক্তিযোদ্ধা নানাভাবে তৈরি হচ্ছে। এখন মুক্তিযোদ্ধা হওয়া লাগে না। আমরা দেখি আমাদের দেশে কোর্টও রায় দিয়ে ‍মুক্তিযোদ্ধা বানাচ্ছেন।

আমরা মুক্তিযোদ্ধা যাচাই–বাছাই কমিটিতে অমুক্তিযোদ্ধাদের নাম বাদ দিয়েছি। তাঁরা কোর্টে গিয়ে রায় নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা হচ্ছেন। মুক্তিযোদ্ধা তো বানানো যায় না। মুক্তিযোদ্ধা তো হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধা বানানোর প্রথা বাদ দিতে হবে। এটা বাতিল করতে হবে।’

জিল্লুল হাকিম আরও বলেন, স্বাস্থ্য খাতে অনেক বরাদ্দ দেওয়া হয়। কিন্তু হাসপাতালে সস্তা যন্ত্রপাতি কেনা হয়। এগুলো এক বছরে বিকল হয়ে যায়। টেকসই যন্ত্রপাতি কেনা উচিত। বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশ। এখানে টেকসই যন্ত্রপাতি কিনে বেশি দিন যেন সেবা দেওয়া যায়, সেটা করা উচিত।