পাবনার ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন স্টেশনের কাছে ঢাকা-কলকাতা-ঢাকা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনে পেট্রলবোমা হামলার ঘটনায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে রেলওয়ে থানায় মামলা হয়েছে। ঈশ্বরদী রেল পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে গতকাল রোববার রাতে মামলাটি করেন। মামলায় ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টুকে আসামি করা হয়েছে।

আজ সোমবার পর্যন্ত পুলিশ এ মামলায় কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। তবে ঘটনাস্থল থেকে বোমার আলামত উদ্ধার করা হয়েছে।

রেলওয়ে থানার পুলিশ ঈশ্বরদী সার্কেলের পরিদর্শক এস এম জাহাঙ্গীর আলম জানান, ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫(৩) ধারায় ট্রেনে নাশকতার ঘটনায় স্থানীয় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয়। এতে আটজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বাকিরা অজ্ঞাতনামা।

আজ সকালে সৈয়দপুর রেলওয়ে জেলার সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) কাজী আহসান হাবীব মৈত্রী ট্রেনে পেট্রলবোমা হামলার ঘটনাটি তদন্তের জন্য ঈশ্বরদী স্টেশনে গিয়ে কাজ শুরু করেছেন।

এদিকে, মৈত্রী ট্রেনে পেট্রলবোমা হামলার পর গতকাল রাত থেকে তৎপর হয়ে উঠেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। রাতে যৌথবাহিনী সাঁড়াশি অভিযান চালায় ঈশ্বরদীতে। এ সময় বিভিন্ন এলাকা থেকে ২১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরা বিভিন্ন সন্ত্রাসী ও নাশকতার সঙ্গে জড়িত বলে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিমান কুমার দাশ দাবি করেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন