বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে আরব আলী তাঁর নিজ এলাকা হাসানবাগ থেকে মহড়া দিয়ে কুষ্টিয়া শহরে মনোনয়নপত্র জমা দিতে আসেন। এতে তিন শতাধিক মোটরসাইকেল অংশ নেয়। প্রকাশ্যে নৌকার প্রার্থী টাকা বিতরণ করলেও এখনো তাঁর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেননি সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তা। অন্য প্রার্থীরা নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার হাসানবাগ থেকে মোটরসাইকেল মহড়ার আয়োজন করা হয়। মহড়া নিয়ে আরব আলী মনোনয়ন জমা দিতে আসেন সদর উপজেলায়। এতে ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা থেকে নেতা-কর্মী ও তাঁর সমর্থকেরা অংশ নেন। শুরুতে সবাই হাসানবাগ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে জড়ো হন। সারিবদ্ধভাবে মোটরসাইকেল বের হওয়ার সময় চালকদের হাতে ৫০০ টাকার নোট গুঁজে দেন নৌকার প্রার্থী।

default-image

আবদালপুর ইউপি থেকে আরব আলীসহ পাঁচজন মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী দুজন ও দুজন স্বতন্ত্র প্রার্থী। আরব আলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। গত নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেলেও তিনি পরাজিত হন। ৫ জানুয়ারি এই উপজেলায় ইউপি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। কাল রোববার প্রার্থী যাচাই–বাছাইয়ের দিন।

মহড়ায় অংশ নেওয়া কয়েকজন জানান, যাঁরা মোটরসাইকেলে এসেছিলেন, তাঁদের মোটরসাইকেলের তেল খরচ ও খাওয়া বাবদ টাকা দেন আরব আলী। ৫০০ টাকা করে দেওয়া হয় চালকদের। অনেকে টাকা নিতে না চাইলেও জোর করে দেওয়া হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আবদালুপর ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া দুজন প্রার্থী জানান, বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। প্রকাশ্যে একজন চেয়ারম্যান প্রার্থী টাকা বিতরণ করে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছেন। তিনি কোনো আইন মানছেন না। বিষয়টি যাঁদের দেখার দায়িত্ব, তাঁরাও কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। এটা দুঃখজনক।

চেয়ারম্যান প্রার্থী আরব আলী নিজেই তাঁর ফেসবুক পেজে ভিডিওটি আপলোড করেন। পরে সেটি সরিয়ে নেন। এ বিষয়ে কথা হলে আরব আলী প্রথম আলোকে বলেন, ‘সত্য কথা এখানে লুকানোর কিছু নেই। কয়েকজন গরিব মানুষ মোটরসাইকেল নিয়ে আমার শোডাউনে এসেছিল। এসব গরিব মানুষকে কিছু টাকা দিয়েছি। মিথ্যা কথা বলে তো কোনো লাভ নেই। এ ছাড়া তেমন কিছু নয়।’

আবদালপুর ইউপির রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আবদুল মতিন প্রথম আলোকে বলেন, ‘এটা আইন পরিপন্থী কাজ। বিষয়টি নিয়ে এখনো কেউ কোনো অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন