সন্ধ্যার সময় বাড়ির ছাদে উঠে মোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন সৃষ্টি রানী (১৯)। পাঁচতলা বাড়িটির ছাদ ঘিরে ছিল রেলিংও। কথা বলতে বলতেই হঠাৎ করে ছাদ থেকে নিচে পড়ে যান তিনি। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। গতকাল বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের আমিন মোড় এলাকায় মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটে।

সৃষ্টি রানী রংপুর কারমাইকেল কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তাঁর বাবার নাম বিপুল চন্দ্র।

নিহত কলেজছাত্রীর পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সন্ধ্যার দিকে মোবাইল ফোনে কথা বলতে ছাদে ওঠেন সৃষ্টি। ছাদে একাই ছিলেন তিনি। হঠাৎ পাঁচতলার ছাদ থেকে তাঁকে নিচে পড়ে যেতে দেখেন তাঁরা। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সৃষ্টি রানী মারা যান।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান পাশা বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ফোনে কথা বলতে বলতে অসাবধানতার কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0