বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে আবজাল হোসেন খান (৪৫) নামের একজনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বুধবার রাতে মোরেলগঞ্জ উপজেলার বহরবুনিয়া ইউনিয়নের খাসখণ্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বহরবুনিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি জাহাঙ্গীর হাওলাদার প্রথম আলো ডটকমকে বলেন, নিহত আবজাল হোসেন খান বহরবুনিয়া ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সহসভাপতি ছিলেন। তিনি বেতিবুনিয়া গ্রামের কাজল খানের ছেলে।

নিহতের ছোট ভাই খান রেজাউল করিম প্রথম আলো ডটকমকে বলেন, গতকাল রাত আটটার দিকে স্থানীয় ফুলহাতা বাজার থেকে হেঁটে বাড়ি ফেরার পথে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আবজালকে জখম করে। তারা তাঁকে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে আবজালের চিত্কারে আশপাশের লোকজন গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিত্সক মৃত ঘোষণা করেন। তবে কী কারণে তাঁর ভাইকে হত্যা করা হয়েছে, তিনি তা বলতে পারেননি।

বাগেরহাট সদর হাসপাতালের চিকিত্সক মুশফিকার শামস জানান, আবজালকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল। তাঁর মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে তিনি জানান।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আবজাল হত্যাকাণ্ডে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। হত্যাকাণ্ডের কারণ উদঘাটনে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। তবে নিহতের পরিবারের কেউ মামলা করেনি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন