পাটুরিয়া থেকে দৌলতদিয়া যাওয়ার পথে আজ রোববার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে যাত্রীবাহী একটি লঞ্চ ডুবে গেছে। পদ্মা নদীর মাঝখানে কোনো নৌযানের ধাক্কায় এমভি মোস্তফা নামে ওই লঞ্চটি ডুবে যায় বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

লঞ্চের বেঁচে যাওয়া যাত্রী শ্যামল ও হাসান জানান, কোনো কিছুর সঙ্গে ধাক্কা লেগে লঞ্চটি ডুবে যায়। স্থানীয় পর্যায়ে ঘটনাস্থলে উদ্ধারকাজ চলছে। লঞ্চে কতজন যাত্রী ছিলেন বা কেউ হতাহত হয়েছেন কি না, তা জানা যায়নি।

ডুবে যাওয়া লঞ্চ থেকে উদ্ধার পাওয়া যাত্রী হাফিজুর রহমান শেখের ভাষ্য, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পাটুরিয়া ঘাট থেকে লঞ্চটি দৌলতদিয়ার উদ্দেশে ছাড়ে। রওনা হওয়ার ১৫ মিনিট পরে আড়াআড়িভাবে আসা একটি কার্গো জাহাজ লঞ্চটির মাঝখান বরাবর আঘাত করে। এতে লঞ্চটি উল্টে যায়। তিনি লঞ্চের ডেকে ছিলেন। ধাক্কায় তিনি নদীতে পড়ে যান।

হাফিজুর রহমান শেখ আরও জানান, যে কার্গো জাহাজটি লঞ্চে আঘাত করেছিল, সেখানেই তিনি ওঠেন। যাঁরা লঞ্চের ডেকে ছিলেন, তাঁরা বের হতে পেরেছেন। তবে ভেতরে থাকা যাত্রীরা কেউ বের হতে পারেননি। হাফিজুরের বাড়ি বাগেরহাটে।

ফায়ার সার্ভিস, স্থানীয় পুলিশ ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থার (বিআইডব্লিউটিসি) কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গেছেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন