default-image

যুক্তরাষ্ট্রে শিক্ষার্থী ছিলেন ও পুনরায় লেখাপড়ায় ফিরে যেতে ইচ্ছুক এমন শিক্ষার্থীসহ নির্দিষ্ট কয়েক ধরনের নন-ইমিগ্রান্ট, যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে এবং ভিসা নবায়ন করা দরকার, তারা আজ রোববার থেকে ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। ঢাকার যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস সাক্ষাৎকার অব্যাহতির যোগ্যতার শর্তাবলি পূরণ সাপেক্ষে ভিসা নবায়ন করার আবেদন গ্রহণ শুরু করেছে।  
ঢাকার যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস এক গণবিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানিয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস নির্দিষ্ট শ্রেণিভুক্ত নন-ইমিগ্রান্ট ভিসার আবেদন গ্রহণ করতে শুরু করেছে। আবেদনকারীরা এই লিংকে গিয়ে www.ustraveldocs.com/bd লগইন করে তাদের প্রোফাইল আপডেট করবেন এবং প্রয়োজনীয় ফি পরিশোধ করার পর তাদের অ্যাপ্লিকেশন প্যাকেট ওয়েবসাইটে বর্ণিত সেন্টারে জমা দিতে পারবেন: https://bd.usembassy.gov/important-notice-regarding-changes-visa-collection-center/
দূতাবাস -ইন্টারভিউ -ওয়েভার নবায়নের জন্য যোগ্য এমন F, J, M, O, Q, এবং C1/D ভিসার আবেদনগুলো ভিসার জন্য প্রক্রিয়া করবে। সাক্ষাৎকার অব্যাহতির প্রয়োজনীয় শর্তাবলি এই লিংকে পাওয়া যাবে: https://bd.usembassy.gov/wp-content/uploads/sites/70/2017/01/drop-box-checklist-revised-13117.pdf

বিজ্ঞাপন

গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সাক্ষাৎকার ছাড়া ভিসা নবায়নের যোগ্যতা অর্জনের জন্য, আবেদনটি অবশ্যই পুরোনো ভিসার একই শ্রেণিভুক্ত হতে হবে এবং এই আবেদন পুরোনো ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার ২৪ মাসের মধ্যে হতে হবে। দূতাবাস আবেদন পাওয়ার পরে, কনস্যুলার কর্মকর্তা পর্যালোচনা করে নির্ধারণ করবেন যে আবেদনকারীর ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকারের প্রয়োজন আছে কি নেই। যাদের সাক্ষাৎকারের প্রয়োজন হবে তারা নিয়মিত ভিসা কার্যক্রম চালু হলে সাক্ষাৎকারের জন্য সময় নিতে পারবেন।
যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানিয়েছে, ভিসা আবেদনের জন্য ফি (এমআরভি) এক বছর পর্যন্ত বৈধ থাকবে এবং এটি যে দেশে পরিশোধ করা হয়েছে সেখানে পরিশোধের তারিখ থেকে পরবর্তী এক বছরের মধ্যে সাক্ষাৎকারের অ্যাপয়েন্টমেন্টের জন্য ব্যবহার করা যায়। আবেদনকারীদের জরুরি প্রয়োজনে অথবা অবিলম্বে ভ্রমণ করতে হলে এই ঠিকানায় যোগাযোগ করতে হবে: support-bangladesh@ustraveldocs.com.
H1B, L1, এবং নির্দিষ্ট ধরনের J শ্রেণিভুক্ত আবেদনকারী কিংবা তাদের ওপর নির্ভরশীল যারা রাষ্ট্রপতি ঘোষিত ১০০৫২ এর আওতাভুক্ত তাদের কেউ যদি মনে করেন যে, তিনি ঘোষণার ব্যতিক্রম তালিকাভুক্তদের একজন, শুধু সে ক্ষেত্রেই তিনি সাক্ষাৎকারের জন্য অনুরোধ করতে পারেন। রাষ্ট্রপতির ঘোষণা ও তালিকার জন্য দেখুন: https://www.whitehouse.gov/presidential-actions/proclamation-suspending-entry-aliens-present-risk-u-s-labor-market-following-coronavirus-outbreak/.

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জানিয়েছে যে, তারা নিচের শ্রেণিভুক্ত ভিসা নবায়নের আবেদন গ্রহণ করছে:
সি১/ডি (C1/D): ট্রানজিট/জাহাজের নাবিক বা ক্রু
এফ১ (F1): লেখাপড়ার মধ্যে আছে এমন শিক্ষার্থী যারা তাদের শিক্ষার্থী (স্টুডেন্ট) ভিসা নবায়ন করতে চায়। এটি শুধু তাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে যারা একই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আগের বিষয় নিয়ে লেখাপড়া করতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ভিসা নবায়ন করতে চাচ্ছে। এটি তাদের জন্য প্রযোজ্য হবে না — যে শিক্ষার্থীরা নতুন কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অথবা নতুন কোনো বিষয় নিয়ে লেখাপড়া করতে ইচ্ছুক, কিংবা যাদের যেকোনো কারণেই হোক সাক্ষাৎকারের প্রয়োজন রয়েছে।
এফ২ (F2): এফ১ শিক্ষার্থীদের স্বামী/স্ত্রী এবং/অথবা ২১ বছরের কম বয়সী অবিবাহিত সন্তান।

বিজ্ঞাপন

জে (J): এক্সচেঞ্জ ভিজিটর ভিসা (রাষ্ট্রপতি ঘোষিত ১০০১৪ এর অন্তর্ভুক্ত নয় এমন ইন্টার্ন, প্রশিক্ষণার্থী, শিক্ষক, ক্যাম্প কাউন্সেলর, সমান শর্তে বাসস্থান ও কাজের বিনিময়ে গ্রীষ্মকালীন সময়ে কাজের জন্য ভিসা)
এম (M): শিক্ষার্থী — বৃত্তিমূলক বা ভকেশনাল।
ও (O): বিদেশি নাগরিক যাদের বিজ্ঞান, শিল্প-সংস্কৃতি, শিক্ষা, ব্যবসা-বাণিজ্য কিংবা খেলাধুলায় অসামান্য দক্ষতা রয়েছে।
কিউ (Q): এক্সচেঞ্জ ভিজিটরস — আন্তর্জাতিক সংস্কৃতি।
গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস এখনো B1/B2 ভিসার আবেদন প্রক্রিয়াকরণের কাজ শুরু করেনি। তবে, কবে নাগাদ এই ধরনের ভিসার অ্যাপ্লিকেশনের প্রক্রিয়াকরণ শুরু হবে তা শিগগিরই ঘোষণা করা হবে। এই ঘোষণা ঢাকার যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের ওয়েবসাইট ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করা হবে।

মন্তব্য পড়ুন 0