‘যদি বর্ষে মাঘের শেষ, ধন্য রাজার পুণ্য দেশ’—খনার এই বচন গ্রামবাংলার ক্ষেত্রে আক্ষরিক অর্থেই সত্য। তবে শহরে মাঘের শেষের বৃষ্টি উল্টো অর্থই দেয়। অন্তত গত দুই দিনে রাজধানীজুড়ে হিমেল বাতাসের সঙ্গে বৃষ্টির ঝাপটা নগরবাসীর মনে সুখকর অনুভূতি তো নয়ই, বরং ভোগান্তিই বাড়িয়েছে।
আবহাওয়া বিভাগ বলছে, শীতকে বিদায় আর বসন্তকে স্বাগত জানানোর প্রকৃতির ভাষা হচ্ছে বৃষ্টি। ঋতুচক্রের স্বাভাবিক নিয়মে এক পশলা বৃষ্টি দিয়েই শীত বিদায় নেয়। তবে এই বৃষ্টি যে দুই দিন ধরে চলছে তার নেপথ্যে কাজ করেছে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট পশ্চিমা লঘুচাপ। লঘুচাপটি বর্তমানে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কাছে দুর্বল আকারে অবস্থান করছে। এর ফলে বায়ুমণ্ডলে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেড়েছে। হচ্ছে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি।
আবহাওয়া বিভাগের পূর্বাভাস অবশ্য বলছে, বৃষ্টি যা হওয়ার তা গত দুই দিনে হয়ে গেছে। আজ থেকে বৃষ্টির ঝাপটা কমে গিয়ে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে।
গতকাল রাজধানীসহ দেশের বেশির ভাগ এলাকায় কমবেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে। রাজধানীতে এর পরিমাণ রেকর্ড করা হয়েছে তিন মিলিমিটার। আর দেশের সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে বগুড়ায় ২৫ মিলিমিটার।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন