চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে ঐক্যের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। তিনি বলেছেন, বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। যত তাড়াতাড়ি রাজনৈতিক ঐক্য স্থাপিত হবে, তত তাড়াতাড়ি বাংলাদেশ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাবে।
গতকাল সোমবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেত্রী রওশন এরশাদের সঙ্গে বৈঠকে ওয়াং ই এ কথা বলেন। বিরোধীদলীয় নেত্রীর কার্যালয় থেকে গণমাধ্যমে একটি বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।
চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বরাত দিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ ও চীনের সম্পর্ক অনেক গভীর। আগামী বছর দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের ৪০ বছর পূর্তিতে জাঁকজমকপূর্ণ উৎসব করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন ওয়াং ই।
উন্নয়নের যাত্রায় চীন সব সময় বাংলাদেশের পাশে দাঁড়াবে বলে আশ্বাস দিয়ে এ সময় ওয়াং ই বলেন, চীন বাংলাদেশে শিল্পাঞ্চল প্রতিষ্ঠায় আগ্রহী।
রওশন এরশাদ বাংলাদেশে অবকাঠামোগত উন্নয়নে চীনকে বিনিয়োগ বাড়ানোর আহ্বান জানান।
সাক্ষাৎ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ তাজুল ইসলাম চৌধুরী, সাংসদ ফখরুল ইমাম, বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স কু জুয়ান ঝু প্রমুখ।
ঢাকা ত্যাগ: বাসস জানায়, চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী তিন দিনের সরকারি সফর শেষে গতকাল বিকেলে ঢাকা ত্যাগ করেন। বেলা সাড়ে তিনটায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাঁকে বিদায় জানান পররাষ্ট্রসচিব শহিদুল হক ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা।
দুই দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও জোরদারের লক্ষ্যে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলীর আমন্ত্রণে ওয়াং ই গত শনিবার ঢাকায় আসেন। সফরকালে তিনি রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সংসদের বিরোধীদলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ ছাড়া গত রোববার তিনি এ এইচ মাহমুদ আলীর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় আলোচনা করেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন