রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলায় গত রোববার মারা যাওয়া বৃদ্ধার করোনাভাইরাস সংক্রমণের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ এসেছে। আজ বুধবার তাঁর প্রতিবেদন এসেছে বলে জানিয়েছেন বৃদ্ধার ছেলে।

মারা যাওয়া বৃদ্ধার নাম আয়েশা খাতুন (৭৫)। তিনি কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের রতনদিয়া গ্রামের আবদুল জলিল বিশ্বাসের স্ত্রী। তাঁর চার ছেলেমেয়ে রয়েছেন।

গত রোববার বিকেলে আয়েশা খাতুন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

হাসপাতাল ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার অসুস্থ অবস্থায় আয়েশা খাতুনকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন রোববার বিকেলে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মারা যাওয়ার পর তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আজ বুধবার তাঁর নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন আসে। এতে তাঁর শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্তের কথা জানানো হয়েছে।

আয়েশা খাতুনের ছেলে আবু বক্কর বলেন, ‘আমার মায়ের শরীরে করোনাভাইরাসের লক্ষণ যেমন ডায়রিয়া, কাশি, গলাব্যথা এসব ছিল না। তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। গত শনিবার বিকেলে তাঁকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন বিকেলে তিনি মারা যান। সেদিন রাত ১০টার দিকে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁকে দাফন করা হয়েছে।’

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন