default-image

দেশব্যাপী নির্দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে এবং ভোট চুরি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে আয়োজিত বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশ চলছে। পুলিশের ২১ দফা শর্ত মেনে মঙ্গলবার বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে নগরের নাইস কনভেনশন সেন্টার প্রাঙ্গণে এ সমাবেশ শুরু হয়।

রাজশাহী নগর বিএনপি আয়োজিত এ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ। বক্তার তালিকায় আছেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান, মিজানুর রহমান, জাতীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম মহাসচিব সাংসদ হারুন অর রশিদ, বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুছ তালুকদার, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আওয়াল, ইশরাক হোসেন প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

রাজশাহী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ অভিযোগ করেছেন, রাজশাহী শহরে ঢুকতে বিভিন্ন স্থানে পুলিশ বিএনপির নেতা-কর্মীদের বাধা দিয়েছে। নগরের প্রবেশমুখগুলোতে পুলিশের তল্লাশিচৌকি বসানো হয়েছে। সেখানে মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার ও অটোরিকশার যাত্রীদের তল্লাশি করার পরই শহরে ঢুকতে দেওয়া হয়েছে। বাধ্য হয়ে বাঘা ও চারঘাট থেকে অনেক নেতা-কর্মী পদ্মা নদী হয়ে ট্রলারযোগে এসে সমাবেশে যোগ দিয়েছেন। বাস বন্ধ থাকার কারণে নওগাঁ থেকে নেতা-কর্মীরা ট্রেনযোগে রাজশাহী শহরে এসেছেন।

default-image

জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আওয়ালকে পুঠিয়ার ঝলমলিয়া ও বানেশ্বরে গাড়ি থামিয়ে তল্লাশির পর ছাড়া হয়। সমাবেশকে সামনে রেখে গতকাল সোমবার থেকে রাজশাহীর সঙ্গে সব পথে বাস যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়। তা ছাড়া রাজশাহী পর্যাপ্ত খাবার হোটেল খোলা না থাকায় নেতা-কর্মীরা ভোগান্তিতে পড়ছেন। নেতা-কর্মীদের অনেককে পথের ধারের দোকানে বসে কালাইয়ের রুটি খেতে দেখা গেছে।
বিকেলে সমাবেশ শুরুর আগে অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশ করা নিয়ে নেতা-কর্মীদের মধ্যে ছোটখাটো হাতাহাতি হয়। এর বাইরে শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ চলছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন