কক্সবাজারের রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের টাইংগাকাটা গ্রামে ১০টি মর্টার শেল পাওয়া গেছে। গত শনিবার রাস্তা নির্মাণের সময় মাটির নিচে মর্টার শেলগুলোর সন্ধান পান শ্রমিকেরা।
পুলিশ জানায়, উদ্ধার করা মর্টার শেলগুলো মাটির নিচে পুঁতে রাখা হয়েছে। চট্টগ্রাম থেকে সেনাবাহিনীর বিশেষজ্ঞ দল এসে এগুলো ধ্বংস করবে। রামু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইকুল আহমেদ ভূঁইয়া প্রথম আলোকে বলেন, ‘মর্টার শেলগুলো ধ্বংস বা নিষ্ক্রিয় করার জন্য চট্টগ্রাম থেকে সেনাবাহিনীর একটি বিশেষজ্ঞ দল রামুর উদ্দেশে যাত্রা করেছে বলে শুনেছি।’
খুনিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবদুল মাবুদ বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে টাইংগাকাটা গ্রামে একটি রাস্তা নির্মাণ করা হচ্ছে। শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সড়কের জন্য মাটি খননের সময় শ্রমিকেরা ১০টি মর্টার শেল পান। এগুলোর ওজন ছয় থেকে সাত কেজি করে। বিষয়টি তিনি সেনাবাহিনী ও পুলিশসহ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের জানিয়েছেন। সূত্র জানায়, শনিবার বিকেলে সেনাবাহিনীর একটি বিশেষজ্ঞ দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পরে পুলিশের আরেকটি দল মর্টার শেলগুলো পরীক্ষা করে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফায়েল আহমদ বলেন, মর্টার শেলগুলো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ের বলে ধারণা করছে সেনাবাহিনীর বিশেষজ্ঞ দল। তিনি জানান, সম্প্রতি টেকনাফের নাইটং পাহাড় ও বাহারছড়া জঙ্গল থেকে একাধিক মর্টার শেল উদ্ধার করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন