default-image

বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বলেছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র সরকার সব সময় বাংলাদেশের পাশে আছে ও থাকবে। সম্মান ও নিরাপত্তার সঙ্গে রোহিঙ্গারা যাতে নিজ দেশে ফিরতে পারে, সে জন্য আমেরিকা ও জাতিসংঘের অন্যান্য রাষ্ট্রে মিলে যা যা করা দরকার, তার সবই করবে।

চিলমারী উপজেলার অষ্টমীর চরের নটারকান্দি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আজ শনিবার সকালে বন্যাদুর্গত ব্যক্তিদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আর্ল আর মিলার এ কথা বলেন। বন্যা মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের চলমান প্রচেষ্টায় সহযোগিতা করতে যুক্তরাষ্ট্র বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যের জন্য এক লাখ ডলার দেন।

এ সময় রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ায় মিলার বাংলাদেশের উদারতার ভূয়সী প্রশংসা করেন। রোহিঙ্গাদের সাহায্যের জন্য যুক্তরাষ্ট্র সব সময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে তিনি আশ্বস্ত করেন। তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখতে আমরা ইতিমধ্যে মিয়ানমারের সেনাপ্রধানসহ তাঁদের নিরাপত্তা বাহিনীর অনেকের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছি।’

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে মিলার আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ এই লাখো মানুষের জন্য হৃদয় ও সীমান্ত খুলে দিয়েছে। রোহিঙ্গাদের জন্য আমাদের সব ধরনের সহায়তা অব্যাহত থাকবে।’

কেয়ার বাংলাদেশ কর্তৃক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতা বাস্তবায়ন কর্মসূচির আওতায় জেলার ১ হাজার ২০০ পরিবারের প্রায় ৫ হাজার মানুষকে নগদ অর্থ ও খাদ্যবহির্ভূত বিভিন্ন সহায়তা দেওয়া হবে। এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন মিলার।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0