default-image

সুরেন্দ্র কুমার সিনহা দেশের ২১তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ নিয়েছেন। তিনি এস কে সিনহা নামে পরিচিত। আজ শনিবার বেলা ১১টার দিকে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তাঁকে শপথবাক্য পড়ান।

শপথ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরী, বিদায়ী বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেন ছাড়াও কয়েকজন সাবেক প্রধান বিচারপতি উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা শপথ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সংবিধানের ৯৫ (১) অনুচ্ছেদের ক্ষমতাবলে প্রধান বিচারপতি হিসেবে এস কে সিনহাকে নিয়োগ দেন। আইন মন্ত্রণালয় ১২ জানুয়ারি এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এই নিয়োগ ১৭ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হবে। সে অনুসারে আজ শপথ নিলেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা।

এস কে সিনহার বাড়ি মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার তিলকপুর গ্রামে। তাঁর জন্ম ১৯৫১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি। এই হিসাবে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তিনি প্রধান বিচারপতির পদে থাকতে পারবেন।

default-image


প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা ১৯৭৪ সালে সিলেট বারে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন। তিনি ১৯৭৮ সালে হাইকোর্টে এবং ১৯৯০ সালে আপিল বিভাগে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন।
হাইকোর্টে বিচারক হিসেবে নিয়োগ পান ১৯৯৯ সালের ২৪ অক্টোবর এবং আপিল বিভাগের বিচারপতি হন ২০০৯ সালের ১৬ জুলাই।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রয়াত শিক্ষক ললিত মোহন সিনহা ও ধনবতী সিনহা দম্পতির বড় ছেলে বিচারপতি এস কে সিনহা। তাঁদের গ্রামের বাড়িতে থাকেন তাঁর একমাত্র ছোট ভাই নীলমণি সিনহা। এস কে সিনহার স্ত্রী সুষমা সিনহা। তাঁদের বড় মেয়ে সূচনা সিনহা অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনা করছেন। ছোট মেয়ে আশা রানী সিনহা ভারতে পড়াশোনা শেষ করে সম্প্রতি দেশে ফিরেছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0