default-image

১৯৭১ সালের ৩ ডিসেম্বর পাকিস্তানি সেনাদের প্রতিহত করে মুক্তিযোদ্ধারা মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর মুক্ত করেছিলেন। আজ মঙ্গলবার এই উপলক্ষে শমশেরনগর সাহিত্যাঙ্গনের উদ্যোগে ৩ শতাধিক কলেজশিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে শোভাযাত্রা হয়। পরে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত ডাকবাংলোর বটবৃক্ষের তলায় মুক্তিযোদ্ধারা যুদ্ধের স্মৃতিচারণা করেন।

বেলা পৌনে দুইটায় শমশেরনগর পশ্চিম বাজারের ডাকবাংলোর ঐতিহাসিক বটবৃক্ষের তলায় শিক্ষার্থী, মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকদের অংশগ্রহণে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে স্মৃতিচারণা অনুষ্ঠান শুরু হয়। শুরুতেই ৩ ডিসেম্বর শমশেরনগর মুক্ত দিবস ও শমশেরনগর ডাকবাংলোয় ১৯৭১ সালের কক্ষ সম্পর্কে স্বাগত বক্তব্য দেন সাহিত্যাঙ্গনের প্রধান ও সুজা মেমোরিয়াল কলেজ অধ্যক্ষ ম মুর্শেদুর রহমান।

আরও বক্তব্য দেন মো. মুজিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা নির্মল দাস, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাই, লেখক ও গবেষক অধ্যক্ষ রসময় মোহান্ত, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও ১৯৭১ সালে শমশেরনগর ডাকবাংলোয় নির্যাতনের শিকার শহীদ পরিবার সদস্য সাবেক ইউপির চেয়ারম্যান আবদুল মছব্বির। তিন শতাধিক শিক্ষার্থী নীরবে দাঁড়িয়ে তাঁদের কথা শোনেন। বক্তারা মুক্তিযুদ্ধের এসব স্মৃতিচিহ্ন সংরক্ষণের পাশাপাশি স্মৃতিসৌধ নির্মাণের দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন