default-image

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় আলোকচিত্রী শহিদুল আলম জামিন পেয়েছেন। তাঁর জামিন প্রশ্নে রুল যথাযথ ঘোষণা করে আজ বৃহস্পতিবার রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি শেখ আবদুল আউয়াল ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট এ রায় দেন। এতে তাঁর কারামুক্তিতে আইনগত কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন তাঁর অন্যতম আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া।

রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করা হবে।

শুনানি নিয়ে গত ১ নভেম্বর হাইকোর্টের অপর একটি দ্বৈত বেঞ্চ জামিনের আবেদনটি কার্যতালিকা থেকে বাদ দেন। এরপর শহিদুল আলমের আইনজীবীরা আবেদনটি ওই বেঞ্চে উপস্থাপন করেন, যা গতকাল বেলা দুইটায় শুনানির জন্য কার্যতালিকায় ছিল। পরে অ্যাটর্নি জেনারেল অসুস্থ থাকায় এক দিন সময় চাওয়া হয়। আদালত আজ বেলা দুইটায় শুনানির জন্য সময় নির্ধারণ করেন।

ওই মামলায় শহিদুল আলমের জামিন আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ৭ অক্টোবর বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রুল দেন। কেন তাঁকে জামিন দেওয়া হবে না, রুলে তা জানতে চাওয়া হয়।

শহিদুল আলম বর্তমানে কারাগারে আছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন