default-image

বিজ্ঞানমনস্ক লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায়কে যেখানে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে, সেখানে তাঁর স্মরণে একটি শহীদ বেদি করার ঘোষণা দিয়েছে সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম-মুক্তিযুদ্ধ ৭১। গতকাল মঙ্গলবার ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) সামনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ফটকসংলগ্ন ফুটপাতে এক মানববন্ধনে এ ঘোষণা দেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব সাংবাদিক হারুন হাবীব।
মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে আয়োজক সংগঠনের সহসভাপতি কর্নেল (অব.) আবু ওসমান চৌধুরী বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী শক্তির দোসরেরা আজ মুক্তচিন্তার মানুষদের হত্যা করছে। একাত্তরেও একই কায়দায় নিরস্ত্র মানুষদের ওপর হামলা করেছে।
‘মুক্তচিন্তা বিকাশ পাক, মৌলবাদ নিপাত যাক’ শীর্ষক এই মানববন্ধনে জাতীয় কবিতা পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ, সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের কার্যকরী সদস্য তুষার আমিন ও মুক্তিযোদ্ধা লে. জেনারেল (অব.) মো. আলী শিকদার, আব্দুল হাই প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় তাঁরা ‘অভিজিৎ রায়ের ঘাতকদের গ্রেপ্তার কর, বিচার কর’, ‘জঙ্গিবাদের কালো হাত ভেঙে দাও, গুঁড়িয়ে দাও’—এসব লেখা প্ল্যাকার্ড বহন করেন। মানববন্ধন শেষে তাঁরা ঘটনাস্থলে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।
শাহবাগে সংহতি সমাবেশ: অভিজিৎ হত্যার বিচারের দাবিতে শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে শিক্ষক-শিক্ষার্থী-বুদ্ধিজীবী-জনতা সংহতি সমাবেশ করেছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট। অভিজিৎ হত্যার বিচার ছাড়াও সমাবেশ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারা দেশে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা ও ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধ করার দাবি জানানো হয়।
জোটের ব্যানারে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, ছাত্র ফেডারেশন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ও বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রী যৌথভাবে এ সমাবেশ করে। ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি হাসান তারেকের সভাপতিত্বে সমাবেশে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্যসচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এম এম আকাশ, কাবেরী গায়েন, সামিনা লুৎফা, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকী প্রমুখ বক্তব্য দেন।
প্রকৌশলী, চিকিৎসক ও কৃষিবিদদের মানববন্ধন: ছাত্রজোটের সমাবেশের আগে একই স্থানে মানববন্ধন করে ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যান্ড আর্কিটেক্টস ফর এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ইএইডি), ডক্টরস ফর হেলথ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট এবং কৃষিবিদ ইউনিয়ন।
মানববন্ধনে ইএইডির সভাপতি আবু মো. ইউসুফের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন অধ্যাপক এম এম আকাশ, প্রকৌশলী মাহাতাব উদ্দিন, স্থপতি অসিত সাহা, ডক্টরস ফর হেলথ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টের সাধারণ সম্পাদক রকিবুল ইসলাম, কৃষিবিদ ইউনিয়নের নেতা শ্যামল বিশ্বাস প্রমুখ।
মোমবাতি প্রজ্বালন: সন্ধ্যায় অভিজিৎ ও তাঁর স্ত্রী রাফিদা আহমেদের ওপর হামলার স্থানে মোমবাতি প্রজ্বালন করে গণজাগরণ মঞ্চ।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন