শিবপুরে বাস-প্রাইভেটকার সংঘর্ষ, শিশু নিহত

বিজ্ঞাপন
default-image

নরসিংদীর শিবপুরে যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষে আবদুর রহমান (৭) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেল পৌনে চারটার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুরের চৈতন্যা এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় একই পরিবারের চারজনসহ মোট ৫ জন আহত হয়েছেন। আহতদের বাড়ি সিলেটের জালালাবাদে। আহতরা হলেন- নিহত আবদুর রহমানের মা আয়েশা বেগম (৩৫), বাবা বাবুল মিয়া (৪০), নানি তারা বিবি (৭০), বোন সামিয়া (১১) ও প্রাইভেটকারের চালক গোহর আহমেদ (৪২)। আহতরা সবাই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ইটাখোলা হাইওয়ে পুলিশ সূত্র জানায়, সিলেটগামী প্রাইভেটকারটি মহাসড়কের চৈতন্যা এলাকায় পৌঁছালে একটি ট্রাককে ওভারটেক করার চেষ্টা করে। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগতির এনা পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে প্রাইভেটকারটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় সাত বছরের শিশু আবদুর রহমান। প্রাইভেটকারের চালকসহ অপর ৫ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

আহতদের স্বজনেরা জানান, রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১১ বছর বয়সী সামিয়ার ওপেন হার্ট সার্জারি হয়। মঙ্গলবার তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। সামিয়াকে নিয়ে জালালাবাদের বাড়িতে ফিরছিল পরিবারটি। দুপুর দেড়টায় হাসপাতাল থেকে রওনা হন তারা। বিকেল চারটার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

ইটাখোলা হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ জায়েদুল হক প্রথম আলোকে বলেন, নিহত শিশুর লাশ নরসিংদী জেলা হাসপাতালে রাখা হয়েছে। ওই প্রাইভেটকার ও বাস জব্দ করা হয়েছে। তবে বাসের চালক পালিয়ে গেছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন