default-image

কক্সবাজার শহরের নুনিয়ারছটা এলাকার হৃদয় মণি নামের ছয় বছর বয়সী এক শিশুকে অপহরণ ও হত্যার দায়ে মিয়ানমারের দুই নাগরিকসহ তিন আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ রোববার বেলা ১২টার দিকে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. সাদিকুল ইসলাম তালুকদার এ রায় ঘোষণা করেন।মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামিরা হলেন মিয়ানমারের আকিয়াবের মো. আবদুল খালেক ও আবদুল শুক্কুর এবং চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার বাদাতলীর মো. বাহাদুর মিয়া। তারা কক্সবাজার জেলা কারাগারে বন্দী রয়েছেন। এ ছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার আরেক আসামি মো. জসিমকে খালাস দেন আদালত।
মামলা এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৩ সালে ৪ জুলাই সকালে বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে শহরের নুনিয়ারছটা থেকে হৃদয়কে অপহরণ করা হয়। এরপর মুক্তিপণ হিসেবে হৃদয়ের বাবা নুরুল হকের কাছে মুঠোফোনে তিন লাখ টাকা দাবি করে আসামিরা। মুক্তিপণ দিতে না পারায় ওই দিন হৃদয়কে হত্যা করা হয়। ৫ জুলাই কক্সবাজার সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্ট থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ৬ জুলাই শিশুটির বাবা বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় চারজনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। ২০১৪ সালের ২০ এপ্রিল পুলিশ খালেক, বাহাদুর, শুক্কুর ও জসিমের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। আজ আদালত মামলার রায় ঘোষণা করেন।
বাদী পক্ষের আইনজীবী অরূপ বড়ুয়া বলেন, তিন আসামির ফাঁসির দণ্ডাদেশ হওয়ায় বাদী পক্ষ সন্তুষ্ট।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন