বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

চিঠিতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক নতুন মাত্রায় নিতে আগ্রহ দেখিয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার চিঠিটি আসে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করেছে।

পাকিস্তানি শাসনে শোষণ-বঞ্চনা আর নিপীড়নের অবসান ঘটিয়ে সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে ১৯৭১ সালে স্বাধীন হয় বাংলাদেশ। সেই বাংলাদেশ আজ শুক্রবার স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছে। এতে সম্মানিত অতিথি হিসেবে যোগ দিতে এসেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

default-image
বিজ্ঞাপন

পাকিস্তানের প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে সম্প্রতি শেখ হাসিনা শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছিলেন ইমরান খানকে। কোভিড-১৯ আক্রান্ত ইমরানের দ্রুত আরোগ্যও কামনা করেছিলেন তিনি।

ফিরতি চিঠিতে ইমরান খান বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করলেও তাঁর নাম উল্লেখ করা হয়েছে শুধু ‘প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী শেখ মুজিবুর রহমান’ হিসেবে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, একই ইতিহাস, একই বিশ্বাস, আর আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার স্বার্থ অভিন্ন হওয়ায় বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে পাকিস্তান বিশেষ মূল্য দেয়।

বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বিনির্মাণে দুই দেশের মানুষের প্রত্যাশা রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘শতবর্ষ উৎসব এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী আমাদের স্মরণ করিয়ে দেয় দুই দেশের জনগণের মধ্যে পুনর্মিত্রতা ও বন্ধুত্বের দূরদর্শী চিন্তাকে, যা পাকিস্তান ও বাংলাদেশের নেতারা সযত্নে লালন করেছিলেন।’

ইমরান লিখেছেন, ‘ভ্রাতৃপ্রতিম বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের বিদ্যমান বন্ধনকে আরও মজবুত করতে চাই। দুই দেশের জনগণের ভবিষ্যৎ সম্পর্কিত হওয়ায় পরবর্তী প্রজন্মের জন্য আমরা নতুন কিছু করতে চাই।’

বিজ্ঞাপন

দুই দেশের জনগণের আরও ভালো ভবিষ্যৎ এবং দুই দেশের মধ্যে আরও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরিতে যৌথভাবে কাজ করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সম্ভাব্য দ্রুততম সময়ে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ইমরান খান। তা দুই দেশের ভ্রাতৃসুলভ সম্পর্কে নতুন অধ্যায়ের সূচনা করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন