default-image

‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধুসভা জাতীয় আবৃত্তি প্রতিযোগিতা-২০২০’ শেষ হয়েছে। গত রোববার রাতে বন্ধুসভার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে লাইভ অনুষ্ঠানে প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা করা হয়, একই সঙ্গে ছিল প্রতিযোগিতার সমাপনী পর্ব।

‘কণ্ঠ ছাড়ো জোরে’ এই স্লোগানে প্রথম আলো বন্ধুসভার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্যোগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর শুরু হয় এই প্রতিযোগিতা, শেষ হয় ৩০ সেপ্টেম্বর।

প্রতিযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষার্থী সামি আল জাহিদ প্রীতম, ১ম রানারআপ হয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি সাহিত্যের শিক্ষার্থী শাহরিয়ার শাকিল এবং ২য় রানারআপ হয়েছেন তেজগাঁও কলেজের স্নাতক সম্মানের শিক্ষার্থী আছমা আক্তার।

বিজ্ঞাপন

স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সরকারি মোহাম্মদপুর মডেল কলেজের শিক্ষার্থী নাফিস নাইমুল হক। এই পর্যায়ে ১ম রানারআপ আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী আজিজা জামান সাদিয়া এবং ২য় রানারআপ হলিক্রস কলেজের শিক্ষার্থী মহাশ্বেতা চৌধুরী।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধুসভার সাধারণ সম্পাদক সাইমুম মৌসুমীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক। আরও উপস্থিত ছিলেন প্রথম আলো বন্ধুসভা জাতীয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মুমিত আল রশিদ, সাধারণ সম্পাদক মৌসুমী মৌ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি রিদিতা তাহ্সিন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক এমন সুন্দর আয়োজনের জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ধন্যবাদ জানান।

বিজ্ঞাপন

প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে সারা দেশ থেকে ১৫০ জন আবৃত্তির ভিডিও জমা দেন। এ ছাড়া ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকেও বেশ কিছু আবৃত্তির ভিডিও এসেছে। প্রতিযোগিতার বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের বিচারক ছিলেন আবৃত্তিশিল্পী মেহেদি হাসান, বিপ্লব সাহা, পারভেজ চৌধুরী, অনন্যা লাবনী ও সংগীতা আচার্য্য। আর মাহফুজ রিজভী, কামাল উদ্দীন রিমন, কণিকা গোপ, শারমিন মৃত্তিকা ও শহীদুল ইসলাম পাপ্পু ছিলেন স্কুল পর্যায়ের বিচারক।

আয়োজনের আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন প্রথম আলো বন্ধুসভার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখার প্রচার সম্পাদক হাসান মাহমুদ।

মন্তব্য পড়ুন 0