আনোয়ার-কনিকা দম্পতির প্রথম বিবাহবার্ষিকী ছিল গতকাল রোববার ১৫ ফেব্রুয়ারি। দিনটি উদ্যাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তাঁরা। যাচ্ছিলেন চুয়াডাঙ্গার বাড়ি থেকে কর্মস্থল পিরোজপুরের কাউখালীতে। কিন্তু বরিশাল-পিরোজপুর সড়কের ঝালকাঠির রাজাপুরের নৈকাঠি এলাকায় গতকাল সকালে বাসচাপায় নিহত হন আনোয়ার (৩০)।
আনোয়ার চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার মোহনপাড়া গ্রামের আতিয়ার রহমানের ছেলে। তিনি একটি প্রতিষ্ঠানের বিক্রয় প্রতিনিধি ছিলেন।
কনিকা জানান, তাঁরা শনিবার রাতে চুয়াডাঙ্গা থেকে বরিশালের উদ্দেশে রওনা হন। গতকাল সকালে তাঁরা বরিশাল থেকে রাজাপুরের নৈকাঠি যান। সেখান থেকে তাঁদের বাসে করে কাউখালী যাওয়ার কথা ছিল। নৈকাঠি বাজারে নামার পর রাস্তা পার হওয়ার সময় বরিশাল থেকে পিরোজপুরগামী একটি বাস তাঁর স্বামীকে ধাক্কা দেয়। এতে রাস্তায় পড়ে বাসের চাকায় পিষ্ট হন আনোয়ার। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়।
পিকআপের নিচে পিষ্ট প্রতিবন্ধী: ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার ভুবুকদিয়ায় পিকআপ ভ্যানের চাপায় মারা গেছেন আবুল কালাম (৩৫) নামের এক বাক্প্রতিবন্ধী কৃষক। তিনি উপজেলার ডাংগি ইউনিয়নের খইয়া গ্রামের সহেবউদ্দীনের ছেলে।
কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, খেতের কাজ শেষ করে বাড়ি ফিরছিলেন কালাম। বিকেল চারটার দিকে উপজেলার ডাংগি ইউনিয়নের ভুবুকদিয়ায় ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে পিকআপ ভ্যানের নিচে চাপা পড়েন তিনি। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন