প্রথম আলো ট্রাস্ট মাদকবিরোধী আন্দোলনের উদ্যোগে মাদকবিরোধী পরামর্শ সহায়তা অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, সন্তান কোথায় যাচ্ছে, কী করছে, কখন ফিরছে; প্রতিটি বিষয়ে বাবা-মাকে খোঁজ নিতে হবে। সন্তানেরা যাদের সঙ্গে মিশছে, তাদের সম্পর্কেও খোঁজ নিতে হবে। সন্তানদের সঙ্গে এমন সম্পর্ক গড়তে হবে, যাতে তারা বাবা-মাকে সবকিছু খুলে বলতে পারে। এ ছাড়া সন্তানদের পর্যাপ্ত সময়ও দিতে হবে।
রাজধানীর ধানমন্ডির ডব্লিউভিএ মিলনায়তনে গত শনিবার বিকেলে মাদকবিরোধী পরামর্শ সহায়তা-৫৭ অনুষ্ঠান হয়। প্রথম আলো ট্রাস্টের কর্মসূচি ব্যবস্থাপক ফেরদৌস ফয়সালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মাদকাসক্ত ব্যক্তি ও তাদের অভিভাবকদের কাছ থেকে বিভিন্ন সমস্যা শুনে পরামর্শ দেন জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক তাজুল ইসলাম, সহকারী অধ্যাপক আহমেদ হেলাল, মেখলা সরকার, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ফারজানা রাবিন ও বারডেম জেনারেল হাসপাতালের মনোরোগ চিকিৎসক নাসিম জাহান।
আলোচকেরা অভিভাবকদের উদ্দেশে বলেন, মাদকাসক্ত ব্যক্তিদের অধিকাংশই ধূমপানের পথ ধরে নেশায় জড়িয়েছে। একজন ধূমপায়ীর সাধারণত একাধিক ধূমপায়ী বন্ধু থাকে। তাদের মধ্যে দু-একজন মাদকাসক্ত থাকতে পারে। এই দু-একজনের প্রভাবে অন্য ধূমপায়ী বন্ধুরা মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। এভাবে অধিকাংশ ক্ষেত্রে ধূমপান থেকে নেশায় আসক্ত হওয়ার প্রবণতা দেখা যায়।
মাদকবিরোধী পরামর্শের পরবর্তী আয়োজন ১৪ মার্চ বিকেল চারটায় একই স্থানে অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন