বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশানের কার্যালয়ের আশপাশে মুঠোফোনের নেটওয়ার্কের জটিলতার দরুণ টেলিফোন যোগাযোগ ও ইন্টারনেট সংযোগের ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়েছে কয়েকটি দূতাবাস। এ সমস্যা সুরাহার জন্য জাপানসহ তিনটি দূতাবাস পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানিয়েছে।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের আশপাশে জাপান, নেদারল্যান্ডস ও স্পেন দূতাবাস মুঠোফোনের নেটওয়ার্কের সমস্যার কারণে টেলিফোন ও ইন্টারনেট ব্যবহারে অসুবিধার বিষয়টি মন্ত্রণালয়কে জানায়। এর মধ্যে জাপান মৌখিকভাবে এবং নেদারল্যান্ডস ও স্পেন লিখিতভাবে নিরবচ্ছিন মুঠোফোন ও ইন্টারনেটের যোগাযোগ নিশ্চিত করতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করেছে।
তিন দূতাবাসের অনুরোধের বিষয়টি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) জানিয়েছে।
তবে গতকাল রোববার বিটিআরসির একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করে নেটওয়ার্ক সমস্যার বিষয়টি সুরাহা হয়েছে িক না, তা জানা যায়নি। তবে নেটওয়ার্ক সমস্যা নিয়ে তিন দূতাবাসের পক্ষ থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে চিঠি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিটিআরসির সংশ্লিষ্ট একাধিক কর্মকর্তা।
দেশের শীর্ষস্থানীয় মুঠোফোন অপারেটর গ্রামীণফোন সমস্যার বিষয়টি জানিয়ে গত সপ্তাহে বিটিআরসিকে চিঠি দিয়েছে।
গত ৩১ জানুয়ারি খালেদা জিয়ার গুলশানের কার্যালয়ের মুঠোফোন নেটওয়ার্ক বন্ধ করা হয়।
গুলশান-২-এর ৮৬ নম্বর সড়কের ৬ নম্বর বাড়িতে অবস্থিত ওই কার্যালয়ের নেটওয়ার্ক বন্ধ হওয়ার পর থেকে আশপাশের এলাকায় মুঠোফোনে যোগাযোগ ও ইন্টারনেট ব্যবহারে লোকজন সমস্যার মুখে পড়েছেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন