চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে বিএনপিকে আলোচনায় ডাকতে আওয়ামী লীগের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ব্রাসেলসভিত্তিক গবেষণা সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপ (আইসিজি)। একই সঙ্গে জামায়াতের সঙ্গ ছাড়তে বিএনপির প্রতিও আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।
‘বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংকটের মানচিত্রায়ণ’ (ম্যাপিং বাংলাদেশ’স পলিটিক্যাল ক্রাইসিস) শিরোনামে গতকাল সোমবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ আহ্বান জানায় আইসিজি।
প্রতিবেদনে বিএনপিকে আলোচনায় ডাকতে আওয়ামী লীগের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। বলা হয়, এ আলোচনা একেবারে উচ্চপর্যায়ে না হলেও দুই দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের মধ্যে হতে পারে। গণতান্ত্রিক ধারা ফিরিয়ে আনতে করণীয় নির্ধারণ এবং নির্বাচনী সংস্কার নিয়ে দুই দলের মধ্যে আলোচনা হতে পারে বলে প্রতিবেদনে প্রস্তাব দেওয়া হয়। এর পাশাপাশি ঢাকা সিটি করপোরেশনে নির্বাচন অনুষ্ঠানের তাগিদ দেওয়া হয়।
প্রতিবেদনে বলা হয়, দীর্ঘমেয়াদি এই রাজনৈতিক সহিংসতার কারণে শেষ বিচারে শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়া উভয়েই ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটলে সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপের সুযোগ তৈরি হবে। তবে এখনো সেই আশঙ্কা দেখা যায়নি বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। সেখানে এ-ও বলা হয়, এমন ঘটনা বিরল নয় আর এর আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না।
প্রতিবেদনে বলা হয়, মূলধারার রাজনীতিতে বিএনপি যদি কোণঠাসা হয়ে যায়, তবে সরকারবিরোধী রাজনীতিতে উগ্রবাদী শক্তির উত্থানের পথ প্রশস্ত হবে।
সহিংস রাজনীতির পথ পরিহার করার জন্য বিএনপির প্রতি আহ্বান জানানো হয় প্রতিবেদনে। এর পাশাপাশি জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গ ছাড়তে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানানো হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, জামায়াতে ইসলামী দেশে ইসলামপন্থী দলগুলোর ক্ষমতা বাড়াচ্ছে। আর এর ফলে বিএনপির কোনো রাজনৈতিক সুবিধা হচ্ছে না।
প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজনৈতিক সমঝোতার সম্ভাবনা দ্রুত ফুরিয়ে আসছে। রাজনৈতিক সংঘাত ক্রমে বাড়ছে। সহিংস রাজনীতির পথ থেকে ফিরে আসতে আহ্বান জানিয়ে পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে দুই দলের প্রতি একগুচ্ছ পরামর্শ দেওয়া হয় প্রতিবেদনে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন