মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বলেছেন, মানুষের চলার স্বাধীনতার জন্য কোনো লাইসেন্স লাগে না। কিন্তু চলমান সহিংস পরিস্থিতিতে সরকার নাগরিকদের কাঙ্ক্ষিত নিরাপত্তা দিতে পারছে না। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে সরকারকে তার গ্রহণযোগ্যতার প্রমাণ দিতে হবে।
বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের সমন্বয়ে গড়া ফেডারেশন অব হিউম্যান রাইটস অর্গানাইজেশনস আয়োজিত গোলটেবিল আলোচনায় গতকাল শনিবার মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন। ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এই আলোচনা হয়।
মিজানুর রহমান বলেন, অগণতান্ত্রিক পন্থায় গণতন্ত্র অর্জন সম্ভব নয়। গণতন্ত্র উদ্ধারের নামে যে সহিংসতা হচ্ছে তা অর্থহীন। যারা সন্ত্রাস করছে তাদের অপরাধ রাষ্ট্রদ্রোহের শামিল।
রাজনৈতিক দলের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মিজানুর রহমান আরও বলেন, মধ্যবর্তী নির্বাচন নয়, ভবিষ্যতে নির্বাচন নিয়ে যাতে কোনো বিরোধ তৈরি না হয়, তার স্থায়ী সমাধানে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে। তবে সন্ত্রাসী, যারা রাষ্ট্রের কাঠামোতে আঘাত করে, তাদের সঙ্গে কোনো ধরনের রাজনৈতিক সংলাপ হতে পারে না।
সাবেক সেনাপ্রধান নূরউদ্দিন খান উপস্থিত মানবাধিকারকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমরা সরকার নির্বাচন করেছি নিরাপত্তার জন্য। সরকারকে কি বলে বুঝিয়ে দিতে হবে, আমাদের নিরাপত্তার দায়িত্ব তাদের। আপনারা সমস্যার সমাধানে কিছু সুপারিশ তৈরি করে তা দুই নেত্রীর কাছে জমা দেন। তাতে কাজ না হলে রাষ্ট্রপতির কাছে যান।’

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন