চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, ‘সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নগরে হোল্ডিং ট্যাক্স (গৃহকর) বাড়ালে সংসদ নির্বাচনে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। তাই মেয়রকে অনুরোধ, বর্ধিত হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ের সিদ্ধান্ত বন্ধ করুন। সদিচ্ছা থাকলে ট্যাক্স না বাড়িয়ে আয়বর্ধক প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে নগরের উন্নয়ন করা সম্ভব।’ হোল্ডিং ট্যাক্স বাড়ালে আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালামের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মহিউদ্দিন চৌধুরী হোল্ডিং ট্যাক্স না বাড়াতে চট্টগ্রামের মেয়রের প্রতি অনুরোধ জানান। গতকাল বেলা ১১টায় রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির আয়োজনে আন্দরকিল্লা রেড ক্রিসেন্ট প্রাঙ্গণে এম এ সালামকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির কেন্দ্রীয় ব্যবস্থাপনা সদস্য ও জেলা ইউনিটের চেয়ারম্যান শেখ শফিউল আজম।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, শেখ হাসিনা চট্টগ্রামের উন্নয়নের ব্যাপারে আন্তরিক। চট্টগ্রামের উন্নয়নের দায়িত্ব তিনি নিয়েছিলেন। পর্যাপ্ত বরাদ্দ দিয়েছেন এবং দিচ্ছেন। কিন্তু চট্টগ্রামে দৃশ্যমান উন্নয়ন নগরবাসী দেখছে না। তিনি বলেন, ধর্মের নামে সমাজে বিভেদ সৃষ্টি করা হচ্ছে। জঙ্গিবাদ তারই অংশ। সন্তানদের চোখে চোখে রাখতে হবে। সন্তান কী করছে, কোথায় যাচ্ছে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। পরিবার সজাগ থাকলে সন্তানেরা জঙ্গিবাদে জড়াবে না।
এম এ সালামের প্রশংসা করে মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, সততা ও দক্ষতা দেখিয়ে সালাম প্রশাসন পরিচালনা করছেন। তাঁর দৃঢ়তার কারণে গোটা জেলায় সুষম উন্নয়ন হচ্ছে। আগের পাঁচ বছরের মতো আগামী পাঁচ বছরও তিনি একই ধারা বজায় রাখবেন বলে তিনি আশা করেন।
জেলা রেড ক্রিসেন্টের কার্যকরী কমিটির সদস্য বেদারুল আলম চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দর চৌধুরী, জেলা পরিষদের মহিলা সদস্য উম্মে হাবিবা, রেড ক্রিসেন্টের জেলা ও সিটি ইউনিটের সদস্য দোলন মজুমদার, জেমিসন রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতালের জ্যেষ্ঠ চিকিৎসক সাদেকুর রহমান প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন