default-image

সারদার টাকা বাংলাদেশে আসা ও ব্যাংকে গচ্ছিত রাখার কোনো তথ্য মেলেনি বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। গতকাল শনিবার কলকাতার বেঙ্গল চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

সারদার টাকা ঘুরপথে গিয়ে বাংলাদেশের ব্যাংকে গচ্ছিত রাখা হয়েছে এবং সেখান থেকে সেই অর্থ বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠন জেএমবিকেও দেওয়া হয়েছে কি না—সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এখনো এ ব্যাপারে কোনো তথ্য মেলেনি।’

বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের তিস্তা পানিবণ্টন চুক্তি সম্পাদন নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিবাচক ভূমিকা নিচ্ছেন কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আশাবাদী, মুখ্যমন্ত্রী শিগগির বাংলাদেশে যাবেন।’

গত নভেম্বর মাসের শেষ দিকে কলকাতার এক জনসভায় ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ অভিযোগ করেছিলেন, সারদার টাকা বাংলাদেশের জঙ্গিদের হাতে গিয়েছিল, যারা খাগড়াগড় বিস্ফোরণের জন্য দায়ী। যদিও এর পর ভারতের কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং জানিয়েছিলেন, সারদার টাকা বাংলাদেশের জঙ্গিদের হাতে যাওয়ার কোনো তথ্যপ্রমাণ এখনো সিবিআইয়ের হাতে আসেনি। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। তদন্ত এখনো চলছে বলে তিনি জানান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0