কৃষি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে গত বছর কানাডার সাসকাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্লোবাল ইনস্টিটিউট ফর ফুড সিকিউরিটিতে (জিআইএফএস) বঙ্গবন্ধু চেয়ার স্থাপন করা হয়েছে। কানাডা ও বাংলাদেশের কৃষি গবেষকদের মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য ঢাকায় বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) চত্বরে চালু করা হয়েছে জিআইএফএসের আঞ্চলিক অফিস। এ ছাড়া গাজীপুরে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট চত্বরে বঙ্গবন্ধু-পিয়ারে ট্রুডো কৃষিপ্রযুক্তি কেন্দ্র স্থাপনের কাজও এগিয়ে চলছে।

এসব কাজের অগ্রগতি দেখতে সম্প্রতি সাসকাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের চার সদস্যের প্রতিনিধিদল ঢাকা সফর করছে। প্রতিনিধিদলের সদস্য বিশ্ববিদ্যালয়ের জিআইএফএসের পরিচালক স্টিফেন ভিশার, ভাইস প্রেসিডেন্ট (গবেষণা) বালজিৎ সিং, বঙ্গবন্ধু রিসার্চ চেয়ার এন্ড্রু শার্প এবং ঢাকায় নিযুক্ত কানাডার হাইকমিশনার লিলি নিকোলস প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গত রোববার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সাক্ষাৎ করেন।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাসকাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু চেয়ার স্থাপন করায় কানাডা সরকারকে ধন্যবাদ জানান। বঙ্গবন্ধু রিসার্চ চেয়ার হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় এন্ড্রু শার্পকে অভিনন্দন জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু-পিয়ারে ট্রুডো কৃষিপ্রযুক্তি কেন্দ্রকে আন্তর্জাতিক মানের সেন্টারে উন্নীত করা হবে। সেন্টারটিতে বিশ্বের অন্যান্য দেশের বিজ্ঞানীরাও গবেষণা করতে পারবেন।

বৈঠকে স্টিফেন ভিশার বলেন, জিআইএফএসের ঢাকার আঞ্চলিক অফিসকে সব ধরনের কারিগরি সহায়তা দেবেন তাঁরা। এ সময় বালজিত সিং বলেন, উচ্চশিক্ষার জন্য কেউ সাসকাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ে গেলে, তাঁকে সর্বাত্মক সহায়তা প্রদান করা হবে। প্রতিনিধিদলটি বাংলাদেশের কাঁঠালের বছরব্যাপী উৎপাদন ও বহুমুখী ব্যবহার নিয়েও কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করে।

সাক্ষাৎকালে কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুর রাজ্জাক, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস, কৃষিসচিব মো. সায়েদুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের (বিএআরসি) নির্বাহী চেয়ারম্যান শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে কানাডার সাসকাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্লোবাল ইনস্টিটিউট ফর ফুড সিকিউরিটিতে (জিআইএফএস) গত ডিসেম্বরে বঙ্গবন্ধু চেয়ার স্থাপন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে বঙ্গবন্ধু রিসার্চ চেয়ার নিয়োগসহ সব বিষয় সম্পন্ন হয়েছে। জিআইএফএসের জিনোমিকস ও বায়োইনফরমেটিকসের পরিচালক অ্যান্ড্রু শার্পকে বঙ্গবন্ধু রিসার্চ চেয়ার হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

এ চেয়ারের আওতায় বাংলাদেশের জাতীয় কৃষি গবেষণা সিস্টেমভুক্ত (এনএআরএস) প্রতিষ্ঠানসমূহের চাহিদা অনুযায়ী সমসাময়িক বিষয়ের ওপর এনএআরএসের গবেষকেরা পিএইচডি এবং পোস্ট ডক্টরাল গবেষণা করার সুযোগ পাবেন। তা ছাড়া এই চেয়ারের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও কানাডার কৃষি গবেষকদের মধ্যে গবেষণা, উন্নত জ্ঞান ও প্রযুক্তি বিনিময় এবং সহযোগিতা বিষয়ে সম্পর্ক স্থাপিত হবে।

উল্লেখ্য, সাসকাচুয়ান কানাডার কৃষি উৎপাদনে শীর্ষ স্থানীয় প্রদেশ। এটিকে কানাডার খাদ্যভান্ডার বলা হয়। সাসকাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয় কানাডায় কৃষিশিক্ষা ও গবেষণার অন্যতম মর্যাদাপূর্ণ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচিত। সেখানে বঙ্গবন্ধু চেয়ার স্থাপন, ঢাকায় তাদের অফিস চালু এবং বঙ্গবন্ধু-পিয়ারে ট্রুডো কৃষিপ্রযুক্তি কেন্দ্র স্থাপনের ফলে কানাডার প্রযুক্তি ও অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানো যাবে। বাংলাদেশ ও কানাডার মধ্যে কৃষি খাতে সহযোগিতা আরও জোরদার হবে। এর মাধ্যমে আরও মজবুত ও টেকসই হবে দেশের খাদ্যনিরাপত্তা।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন