বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এদিকে সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালকদের মধ্যে মারধরের খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ হয়ে বাস টার্মিনালে হামলা চালান তাঁরা। স্থানীয় কিছু বাসিন্দারা সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালকের পক্ষ নিয়ে হামলায় অংশ নেন। হামলায় ১০-১২টি বাস ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে বলে দাবি করেছেন বাসচালক ও শ্রমিকেরা।

এ ঘটনায় বাসচালক ও শ্রমিকেরা জড়িত সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক ও স্থানীয় বাসিন্দাদের গ্রেপ্তারের দাবিতে দুপুর ১২টার দিক থেকে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে রাখেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিক্ষুব্ধ ব্যক্তিদের শান্ত করে জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনার ঘোষণা দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) বি এম আশরাফ উল্যাহ বলেন, পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। আহত ব্যক্তিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। এ ঘটনায় মামলা হয়নি। মামলার পর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন