তাহিরপুর উপজেলার দুর্গম সীমান্তবর্তী টেকেরহাট ও চানপুর এলাকার বন্যাদুর্গত এক হাজার পরিবারের প্রায় পাঁচ হাজার অসহায় বানভাসি মানুষের মধ্যে বিতরণের জন্য বিজিবি সদস্যদের কাছে এসব ত্রাণসামগ্রী হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সুনামগঞ্জ ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীকে উদ্ধার তৎপরতা ও তাদের মধ্যে প্রয়োজনীয় ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে বিজিবি। সিলেট ব্যাটালিয়নের তত্ত্বাবধানে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বন্যাদুর্গত সীমান্তবর্তী ভোলাগঞ্জ এলাকার ২০০ অসহায় পরিবার, বিয়ানীবাজার ব্যাটালিয়নের তত্ত্বাবধানে সীমান্তবর্তী নয়াগ্রাম এলাকার বন্যাদুর্গত ৩০ পরিবার ও সীমান্ত পরিবার কল্যাণ সমিতি (সীপকস), কুড়িগ্রাম উপশাখা ধরলা নদীর পারসংলগ্ন বন্যাকবলিত ৫০ অসহায় পরিবারের মধ্যে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

সাম্প্রতিক বন্যা শুরুর পরই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সীমান্তবর্তী বন্যাকবলিত অসহায় জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে বিজিবি। সিলেট ও সুনামগঞ্জ ছাড়াও লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, শেরপুর, জামালপুর, নেত্রকোনাসহ বন্যাকবলিত বিভিন্ন স্থানে বিজিবি বন্যার্তদের সহায়তায় কাজ করে যাচ্ছে। এ লক্ষ্যে বিজিবি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য ০১৭৬৯৬০০৫৫৫ এবং ০১৮৮৯৬০০৫৫৫ দুটি টোল ফ্রি নম্বর চালু করেছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন