বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) পুষ্টি ও খাদ্যবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক খালেদা ইসলাম। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রত্যেকের প্রতি কিলোগ্রাম ওজনের জন্য এক গ্রাম আমিষ খাওয়া দরকার। আমিষের ঘাটতির কারণে সদ্য ভূমিষ্ঠ শিশু থেকে বয়স্ক ব্যক্তিরা নানা শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছেন। দেশে এক বছরের কম বয়সী শিশুদের মৃত্যুর হার অধিক হওয়ার অন্যতম কারণ আমিষের ঘাটতি। বয়ঃসন্ধিকালীন তরুণ-তরুণী ও গর্ভবতী নারীদের অবশ্যই প্রোটিন গ্রহণের পরিমাণ বাড়াতে হবে।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দেশের জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকেরা। তাঁরা বলেন, দেশের মানুষকে সাশ্রয়ী মূল্যে ডিম, দুধ ও মাংস দিতে হবে। পোলট্রিশিল্প বহু মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে এবং গ্রামাঞ্চলে নারীর ক্ষমতায়নে বড় ভূমিকা রাখছে। সরকারের উচিত এ শিল্পকে সহায়তা দেওয়া।

শহরে আমিষ বিষয়ে সচেতনতা বাড়ছে বলে মনে করেন দৈনিক যুগান্তরের সম্পাদক সাইফুল আলম। তবে গ্রামাঞ্চলে এ বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতে কাজ করা উচিত বলে মনে করেন তিনি।

এ সময় ফিড ইন্ডাস্ট্রিজ অ্যাসোসিয়েশনের (ফিআব) সভাপতি এহতেশাম বি শাহজাহান বলেন, পোল্ট্রি, ডেইরি ও মৎস্য খাত এ দেশে নীরব বিপ্লব ঘটিয়েছে। দেশের মানুষের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি মাছ, মাংস ও ফিড এখন বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে।

আজকের গোলটেবিল বৈঠকের সঞ্চালনা করেন দৈনিক আজকের পত্রিকার সম্পাদক ও সাবেক তথ্য কমিশনার অধ্যাপক মো. গোলাম রহমান। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন দ্য ডেইলি সান পত্রিকার সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরী, প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম, চ্যানেল-২৪-এর নির্বাহী পরিচালক তালাত মামুন, ডিবিসি নিউজের সম্পাদক প্রণব সাহা, দীপ্ত টেলিভিশনের হেড অব নিউজ ইব্রাহিম আজাদ, ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের প্রধান বার্তা সম্পাদক আশিষ সৈকত ও সহযোগী সম্পাদক শামীম জাহেদী, দ্য বিজনেস পোস্টের নির্বাহী সম্পাদক নাজমুল আহসান, দেশ রূপান্তরের যুগ্ম সম্পাদক গাজী নাসিরুদ্দীন, দৈনিক কালের কণ্ঠের বার্তা সম্পাদক খায়রুল বাশার শামীম, দৈনিক সমকালের বিজনেস এডিটর জাকির হোসেন, দৈনিক ইত্তেফাকের বিজনেস এডিটর জামাল উদ্দীন, বণিক বার্তার ডেপুটি সিটি এডিটর সাহানোয়ার সাইদ শাহীন, জনকণ্ঠের প্রধান প্রতিবেদক কাওসার রহমান, দৈনিক সংবাদের প্রধান প্রতিবেদক সালাম জুবায়ের, দ্য ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের প্রধান প্রতিবেদক এস এম জাহাঙ্গীর, এসএ টেলিভিশনের বিজনেস এডিটর সালাহউদ্দিন বাবলু, যমুনা টিভির বিজনেস এডিটর সাজ্জাদ আলম খান তপু প্রমুখ।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন