মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাওরাকান্দি-শিমুলিয়ায় নৌপথে দুটি স্পিডবোটের মুখোমুখি সংঘর্ষের পর নিখোঁজ হওয়া দুজনের মধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত ব্যক্তির নাম নাজমুল আলম (২৭)। তিনি সেনাবাহিনীর একজন সদস্য ছিলেন।
আজ শনিবার বিকেল তিনটার দিকে শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়ী ঘাট এলাকার পদ্মা নদীতে নাজমুলের লাশটি ভেসে উঠলে তা উদ্ধার করা হয়।
নাজমুলের বাবার নাম আতিয়ার রহমান। নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার রামকান্তপুর গ্রামে তাঁর বাড়ি।
পুলিশ জানায়, গতকাল শুক্রবার দুপুরে কাওরাকান্দি-শিমুলিয়া নৌরুটের কাঁঠালবাড়ি ঘাট এলাকায় দুটি স্পিডবোটের মুখোমুখি সংঘর্ষে বোট দুটি উল্টে যায়। এ সময় দুটি বোটের ২৮ জন যাত্রী তীরে উঠতে পারলেও দুজন যাত্রী নিখোঁজ ছিলেন। শনিবার দুপুরে সেনা সদস্য নাজমুল আলমের লাশ উদ্ধার করা হয়। অজ্ঞাতনামা আরও এক যাত্রী এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।
নাজমুলের ভাই রবিউল শেখ বলেন, নাজমুল রংপুর সেনানিবাসে নয় নম্বর ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যাটালিয়নে কাজ করলেও ডেপুটেশনে ঢাকার পিলখানায় কর্মরত ছিলেন। তিনি ছয় দিন আগে ছুটি নিয়ে বাড়ি এসেছিলেন। শুক্রবার কর্মস্থল ঢাকা যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনার শিকার হন।
শিবচর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ফয়সাল বলেন, বিকেলে নাজমুলের ভাই ও চাচা তাঁর লাশ নিয়ে গেছেন। এ দুর্ঘটনায় নিখোঁজ অপর ব্যক্তির সন্ধান চলছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0