দেশজুড়ে চলছে অচলাবস্থা। প্রতিদিনই আগুনে দগ্ধ হয়ে মরছে মানুষ। পরিস্থিতি উত্তরণে মিলছে না কোনো সমাধানও। এ অবস্থায় দেশব্যাপী চলমান অসহনীয় অচলাবস্থার নিরসন ও গুপ্তঘাতকদের ধ্বংস কামনায় ‘স্রষ্টার দরবারে নাগরিক ফরিয়াদ’ শীর্ষক এক ব্যতিক্রমী কর্মসূচি পালন করেছে সিলেটের নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ।
গতকাল রোববার বিকেল পৌনে পাঁচটায় নগরের দরগামহল্লা এলাকার হজরত শাহজালাল (রহ.)-এর দরগাহ প্রাঙ্গণে সংক্ষুব্ধ নাগরিক আন্দোলনের উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালিত হয়। এতে বিভিন্ন ধর্মের মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এ সময় স্রষ্টার কাছে এক ফরিয়াদে আবেদন জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যেন নিজেদের মধ্যে হিংসাত্মক মনোভাব ভুলে সাধারণ মানুষকে শান্তিতে রাখার মনোবৃত্তি ধারণ করেন।
কর্মসূচির শুরুতেই আয়োজনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে সূচনা বক্তব্য দেন সংক্ষুব্ধ নাগরিক আন্দোলন সিলেটের সমন্বয়ক আবদুল করিম কিম। স্রষ্টার দরবারে নাগরিক ফরিয়াদ পাঠ করেন তায়েফ আহমদ চৌধুরী। কর্মসূচিতে প্রবীণ মুরব্বি আবদুর রহমান চৌধুরী, পাত্র সম্প্রদায় কল্যাণ পরিষদের প্রধান নির্বাহী গৌরাঙ্গ পাত্র, শাহজালাল (রহ.) দরগাহের খাদেম মুজাহিদ হোসেন মুনিম, সমাজকর্মী আনোয়ার সাদাত, ভূমিসন্তান বাংলাদেশের সমন্বয়ক আশরাফুল কবীর, গিরি আর্ট স্কুল অ্যান্ড গ্যালারির কর্মকর্তা চিংলেন সিংহ, সুপ্রজিৎ তালুকদার, আইনজীবী সাব্বির আহমদ প্রমুখ।
লিখিত নাগরিক ফরিয়াদে উল্লেখ করা হয়, ‘হে পরম করুণাময়, তোমার প্রিয় সাধক হজরত শাহজালাল (রহ.)-কে সাক্ষী রেখে ১৬ কোটি মানুষের বাংলাদেশে রাজনীতির নামে যে নারকীয় তাণ্ডব চলছে, তা প্রশমনে আমরা তোমার ঐশ্বরিক সাহায্য প্রত্যাশী। নিরীহ মানুষকে অগ্নিদগ্ধ করে যারা হত্যা করেছে, সেই সব গুপ্ত ঘাতক ও তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয়কারীদের হাত থেকে আমাদের রক্ষা করো। আমাদের জন্য সুশাসন নিশ্চিত করো।’

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন