টানা অবরোধ-হরতালে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের রাজস্ব আদায়ের পরিমাণ কমছে। স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় জানুয়ারি মাসে রাজস্ব আদায়ের পরিমাণ অর্ধেকে নেমে এসেছে।
করপোরেশনের রাজস্ব বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চলতি অর্থবছরের (২০১৪-১৫) প্রথম ছয় মাসে গড়ে রাজস্ব আদায় হয়েছে প্রায় সাড়ে ১৬ কোটি টাকা। কিন্তু জানুয়ারি মাসে আদায় হয়েছে মাত্র সাড়ে ৮ কোটি টাকা। গত ৬ জানুয়ারি থেকে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের লাগাতার অবরোধ ও হরতালের কারণে এমনটি হয়েছে বলে কর্মকর্তারা বলছেন।
এ বিষয়ে করপোরেশনের রাজস্ব কর্মকর্তা শামসুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, মানুষ কর পরিশোধ করছে না। কর আদায় করতে গেলে তাঁরা হরতাল-অবরোধের অজুহাত দাঁড় করাচ্ছেন। ফলে রাজস্ব আদায়ের হার কমে গেছে।
করপোরেশন মূলত ছয়টি খাত থেকে রাজস্ব আদায় করে থাকে। এর মধ্যে জানুয়ারিতে দুটি ছাড়া চারটি খাতেই রাজস্ব আদায়ের পরিমাণ কমেছে। পৌরকর খাতে মাসে গড়ে রাজস্ব আদায় করা হতো প্রায় সাড়ে ১০ কোটি টাকা। কিন্তু জানুয়ারি মাসে এসেছে মাত্র ২ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। আয়ের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ খাত ট্রেড লাইসেন্স শাখা। গত বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত এ খাতে করপোরেশন আদায় করেছিল ৬ কোটি ৫৪ লাখ ৭৫ হাজার ৮৯ টাকা (মাসে গড় আদায় ১ কোটি ৯ লাখ টাকা)। সেখানে জানুয়ারিতে আদায় করা হয় ৩৬ লাখ ৩২ হাজার ৯৮৭ টাকা। সাইনবোর্ড খাতে অবরোধের আগে প্রতি মাসে গড়ে আদায় করা হতো ২১ লাখ ৭৮ হাজার টাকা। জানুয়ারিতে আদায় হয় ৩ লাখ ৮৪ হাজার টাকা। ভূসম্পত্তি খাতে গড়ে ১ কোটি ১০ লাখ ৯৬ হাজার টাকা আদায় হলেও জানুয়ারিতে আদায় করা হয় ১ কোটি ২ লাখ টাকা।
তবে বিবিধ খাতে জানুয়ারি মাসে আদায় করা হয় ১৬ লাখ ৬৮ হাজার ৫৪৪ টাকা। এর আগে প্রতি মাসে গড়ে আদায় করা হয়েছিল ১০ লাখ ৩২ হাজার টাকা। আর ভূমি হস্তান্তর খাতে জানুয়ারি মাসে আদায় হয় ৪ কোটি ৭ লাখ ৩১ হাজার টাকা। এর আগে মাসে গড়ে আদায় হয়েছিল ৩ কোটি ৮১ লাখ ৫২ হাজার টাকা।
করপোরেশনের রাজস্ব বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, গত অর্থবছরে (২০১৩-১৪) করপোরেশন রাজস্ব আদায় করেছে ১৭১ কোটি ৪০ লাখ ৪৫ হাজার ৫০৩ টাকা। অর্থাৎ প্রতি মাসে গড়ে আদায় হয়েছিল ১৪ কোটি ২৮ লাখ ৩৭ হাজার ১২৫ টাকা।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন