default-image

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অজ্ঞাতনামা কিশোরটির পরিচয় পাওয়া গেছে। তার নাম মো. সাগর। হাসপাতালে সোমবার এসে পৌঁছেছেন সাগরের মা হেলেনা বেগম। 

এর আগে গত ২০ ফেব্রুয়ারি প্রথম আলো অনলাইনে ‘হাসপাতালে অচেতন শিশুটি কে?’  শিরোনামে একটি প্রতিবেদন ছাপা হয়।

শিশুটির মা হেলেনা বেগম জানান, তাঁদের বাড়ি নরসিংদী জেলার রায়পুরা থানার মাহমুদনগর গ্রামে। মাতৃগর্ভে সাগরের বয়স যখন তিন মাস, তখনই তার বাবা তাঁকে (হেলেনা বেগমকে) ফেলে চলে যান। সাগরের আরও তিন ভাইবোন আছে। পেটের দায়ে ছোট্টবেলা থেকে সাগর তার বড় ভাই শাহীনের সঙ্গে একটি তাঁত কারখানায় কাজ করত। গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে সাগর নিখোঁজ ছিল। রোববার আত্মীয়ের মাধ্যমে তিনি জানতে পারেন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সাগরের মতো একটি ছেলে চিকিৎসাধীন আছে। রোববার ঢাকায় এসে দেখেন তাঁর সাগর হাসপাতালের বিছানায়।
কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন, সাগরের অবস্থা আগের থেকে একটু ভালোর দিকে। তবে এখনো সে শঙ্কামুক্ত নয়।
গত ৮ ফেব্রুয়ারি নরসিংদী সদর হাসপাতাল থেকে মাথায় আঘাত নিয়ে অচেতন অবস্থায় সাগরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন একজন অ্যাম্বুলেন্স চালক। তাঁর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। চিকিৎসকেরা তাঁর মাথায় অস্ত্রোপচার করেছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0