১১ গুণীজনকে সম্মাননা দিল 'বাংলা দর্পণ'

বিজ্ঞাপন

জাতীয় বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ১১ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে সম্মাননা দিয়েছে শিল্প-সাহিত্য ও সংস্কৃতিবিষয়ক পত্রিকা বাংলা দর্পণ। গতকাল শনিবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে তাঁদের সম্মাননা জানানো হয়।
মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ‘বিজয়ের ৪৫ বছর পূর্তি: চেতনায় একাত্তর’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও সম্মাননা অনুষ্ঠানের আয়োজন
করা হয়। গুণীজনদের উত্তরীয় পরিয়ে ও ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা জানান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।
সম্মাননা পাওয়া ব্যক্তিরা হলেন মুক্তিযোদ্ধা অবসরপ্রাপ্ত লে. কর্নেল নজরুল ইসলাম হিরু বীর প্রতীক, শিক্ষায় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সংখ্যাতিরিক্ত অধ্যাপক সাখাওয়াত আলী খান, শিল্পকলায় অপরাজেয় বাংলার ভাস্কর সৈয়দ আবদুল্লাহ খালিদ, চিকিৎসায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এ বি এম আবদুল্লাহ, সাহিত্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক মনিরুজ্জামান, সংগীতে শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, সাংবাদিকতায় স্বপন কুমার সাহা, ব্যাংকিং ও বিনিয়োগে অধ্যাপক সৈয়দ আহসানুল আলম পারভেজ, সমাজসেবায় অ্যাডিশনাল আইজি মো. মোখলেসুর রহমান, নারী উন্নয়নে নিগার সুলতানা এবং উদ্যোক্তা হিসেবে মীর মোবাশ্বের আলী।
এদের মধ্যে মীর মোবাশ্বের ছাড়া প্রত্যেকে উপস্থিত হয়ে সম্মাননা গ্রহণ করেন। আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শহীদ সাংবাদিক সিরাজুদ্দীন হোসেনের ছেলে জাহীদ রেজা নূর, অধ্যাপক মুনীর চৌধুরীর ছেলে আসিফ মুনীর প্রমুখ।
উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, একাত্তরে যাঁরা মুক্তিযুদ্ধ করেছেন, তাঁরা শত ঝুঁকি নিয়ে যুদ্ধ করেছেন। যাঁরা দেশের জন্য শহীদ হয়েছেন, তাঁরা অমর হয়েছেন। তাই মানুষ তাঁদের স্মরণ করে, ভবিষ্যতেও করবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন