২৬ বছর পর শহীদ মিনারে গিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পেরে আবেগে আপ্লুত জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ।
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে গতকাল রোববার ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে জাপা আয়োজিত আলোচনা সভায় এরশাদ বলেন, ‘আমি আবেগে আপ্লুত। প্রশ্ন করতে পারো, কেন আবেগ? ছোট শহীদ মিনার ছিল, ২৮ বছর আগে আমি শহীদ মিনারের পূর্ণাঙ্গ রূপ দিয়েছি। সেই শহীদ মিনারে ২৬ বছর পর প্রথম প্রহরে ফুলের মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছি। এর চেয়ে বড় কী হতে পারে।’
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার প্রতি ইঙ্গিত করে এরশাদ বলেন, ‘ইতিহাস বড় নির্মম। কাউকে ক্ষমা করেনি। ২৬ বছর যারা আমাকে যেতে দেয়নি তারাও আজ যেতে পারেনি। আমার সঙ্গে যা যা করেছে, তা তা তাদের সঙ্গে হয়েছে। আল্লাহর মাইর।’
ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার ২৬ বছর পর এবারই প্রথম অমর একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে গিয়ে শ্রদ্ধা জানান এরশাদ। অন্যদিকে, এ বছর শহীদ মিনারে যাননি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।
গতকালের আলোচনা সভায় ‘একুশ আমার রক্ত গোলাপ’ শিরোনামে এরশাদ নিজের লেখা একটি কবিতাও আবৃত্তি করে শোনান। এরশাদের বক্তব্যের আগে দলের একাধিক নেতা তাঁদের বক্তব্যে অভিযোগ করেন, শহীদ মিনারে ফুল দিতে গিয়ে জাপার দুজন সাংসদ এরশাদের সঙ্গে ‘বেয়াদবি’ করেছেন।
প্রসঙ্গটি সরাসরি উল্লেখ না করলেও বক্তব্যের শুরুতে এরশাদ বলেন, ‘আমরা একটি পরিবার। উদ্দেশ্য এক, লক্ষ্য এক। সে লক্ষ্য হলো দলকে ক্ষমতায় নিয়ে যাওয়া। দেশকে বিপর্যয়ের হাত থেকে রক্ষা করা।’

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন