দুর্ঘটনার কারণে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে চার ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। আজ সোমবার বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে নারায়ণগঞ্জ স্টেশন থেকে ট্রেন ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়।
ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় দুর্ভোগে পড়ে ওই রেলপথের যাত্রীরা। অনেকে স্টেশনে অপেক্ষায় থাকে। অনেকে বাসে করে ঢাকা যায়।

বেলা দেড়টার দিকে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের কাছে নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী একটি ট্রেনের সঙ্গে কাভার্ড ভ্যানের সংঘর্ষ হয়। এতে ছয়জন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হন।
রেলওয়ের নারায়ণগঞ্জ স্টেশনের স্টেশন মাস্টার জসিম উদ্দিন জানান, দুর্ঘটনায় পড়া ট্রেন ও কাভার্ড ভ্যান রেললাইন থেকে সরানোর পর বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে নারায়ণগঞ্জ থেকে ট্রেন চলাচল শুরু হয়।
নারায়ণগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন সূত্র জানায়, দুপুর সাড়ে ১২টায় নারায়ণগঞ্জ স্টেশনে একটি ট্রেন এসে পৌঁছায়। এটি ১টা ৪০ মিনিটে নারায়ণগঞ্জ ছাড়ার কথা ছিল। কিন্তু কমলাপুরের ওই দুর্ঘটনার কারণে সেটি চার ঘণ্টা পর স্টেশন ছাড়ে।
পুরানা পল্টনের নোয়াখালী হোটেলের কর্মচারী আলমাস আলী জানান, হরতালের কারণে তিনি মুন্সিগঞ্জ থেকে এসেছেন ট্রেনে ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশে। কিন্তু ট্রেন না চলায় যেতে পারছেন না।
ঢাকার বঙ্গবাজারের একটি দোকানের মালিক মাসুম মিয়া জানান, নারায়ণগঞ্জ থেকে মালামাল কিনে তিনি বঙ্গবাজার যাওয়ার জন্য স্টেশনে আসেন। এখানে এসে জানতে পারেন ট্রেন দুর্ঘটনার কথা। হরতালের কারণে ট্রেন কখন ছাড়বে সে অপেক্ষায় আছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন