default-image

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্‌যাপন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে একটি অনুষ্ঠানের উদ্যোগ নিয়েছিল ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। প্রায় ছয় হাজার শিক্ষার্থী এতে অংশগ্রহণের কথা ছিল। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে অনুষ্ঠানটি হয়নি। অনুষ্ঠান না হলেও পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান ৭১ লাখ টাকা তুলে নিয়ে গেছে। দুবার চিঠি দিয়েও সেই টাকা ফেরত পাওয়া যাচ্ছে না।

ঢাকা দক্ষিণ সিটির সমাজকল্যাণ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের সময়ে ‘আমরা সবাই মুজিব’ শীর্ষক ওই অনুষ্ঠান গত বছরের ৭ মার্চে হওয়ার কথা ছিল। এ জন্য ২ কোটি ৬৭ লাখ ৭৯ হাজার ৯৮০ টাকায় এক্সপার্ট প্রোভাইডারস নামের একটি প্রতিষ্ঠানকে অনুষ্ঠান বাস্তবায়নের কাজ দেওয়া হয়। এ কাজ বাস্তবায়ন করতে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অপু খন্দকার গত বছরের ১৬ ফেব্রুয়ারি অগ্রিম ৭১ লাখ ২৪ হাজার ৯৭১ টাকা তুলে নেন। তবে অনুষ্ঠান না হলেও তিনি এখন পর্যন্ত টাকা ফেরত দেননি।

দক্ষিণ সিটির কর্মকর্তারা বলছেন, নতুন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস দায়িত্ব নেওয়ার সাত মাস পর গত বছরের ৬ ডিসেম্বর টাকা ফেরত দিতে প্রতিষ্ঠানটিকে চিঠি দেওয়া হয়। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, সাবেক মেয়রের নির্দেশনায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ছয় হাজার শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে ‘আমরা সবাই মুজিব’ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারির কারণে অনুষ্ঠানটি করার সুযোগ হয়নি। তাই অগ্রিম দেওয়া ৭১ লাখ ২৪ হাজার ৯৭১ টাকা জরুরি ভিত্তিতে ফেরত দেওয়ার বিষয়টি অতি জরুরি।

বিজ্ঞাপন

চিঠি পেলেও প্রতিষ্ঠানটি টাকা ফেরত না দেওয়ায় দক্ষিণ সিটির প্রধান সমাজকল্যাণ ও বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা আকন্দ মোহাম্মদ ফয়সাল উদ্দীন ১ মার্চ আরেকটি চিঠি দিয়েছেন।

টাকা ফেরত দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে অপু খন্দকার দুটি চিঠি পাওয়ার কথা স্বীকার করে প্রথম আলোকে বলেন, আয়োজনে অনেক কিছু ছিল। মোটামুটি কাজও শুরু করেছিলেন। অনুষ্ঠান বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে শিক্ষার্থীদের পোশাক বানানোসহ নানা খাতে তাঁরা টাকা খরচ করেছেন। এই টাকার পরিমাণ প্রায় ১ কোটি ৪০ লাখ টাকা। অনুষ্ঠান না হওয়ায় উল্টো আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন তিনি।

অপু খন্দকার আরও বলেন, চলতি বছরের ৭ মার্চ অনুষ্ঠান করতে তাঁরা আগ্রহী ছিলেন। এ বিষয়ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের জানিয়েছেন। কিন্তু ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যায়নি।

এখন পর্যন্ত লিখিত কোনো জবাব বা টাকা ফেরত পাননি জানিয়ে দক্ষিণ সিটির প্রধান সমাজকল্যাণ ও বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা আকন্দ মোহাম্মদ ফয়সাল উদ্দীন প্রথম আলোকে বলেন, যেহেতু অনুষ্ঠানটি হয়নি, তাই করপোরেশনের কাছ থেকে যে টাকা নেওয়া হয়েছে, সেই টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। টাকা ফেরত না দিলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন