default-image

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী মোড়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন নুরুল হক (৩৩) নামের এক ব্যক্তি। আচমকা একটি গাড়ি এসে তাঁকে ধাক্কা দেয়। ছিটকে পড়েন তিনি। রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নুরুল হক বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের কাঠমিস্ত্রি ছিলেন। তিনি সপরিবার যাত্রাবাড়ী ওয়াপদা কলোনিতে থাকতেন। তাঁর বাবার নাম ইসমাইল হোসেন। গ্রামের বাড়ি পিরোজপুরের হুলারহাটের লকাকাঠিতে।

বিজ্ঞাপন

মতিঝিল থানার পুলিশ জানায়, আজ সকাল আটটার দিকে নুরুল হক তাঁর কর্মস্থল মতিঝিলে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের কার্যালয়ে যেতে যাত্রাবাড়ী চৌরাস্তা মোড়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। একপর্যায়ে বেপরোয়া গতির একটি বাস তাঁকে ধাক্কা দিলে তিনি রাস্তায় ছিটকে পড়েন। রক্তাক্ত অবস্থায় সকাল সাড়ে নয়টার দিকে তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

আজ বিকেলে যোগাযোগ করা হলে যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, চালকসহ বাসটি আটক করা হয়েছে। নুরুল হকের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে যাত্রাবাড়ী থানায় দুর্ঘটনাজনিত আইনে একটি মামলা হয়েছে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন