বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কাবেরির ছোট ভাই রাজীব কুমার সরকার বলেন, এক বছর আগে ফেসবুকে রুপম চৌধুরী নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে কাবেরির পরিচয় হয়। তাঁদের মধ্যে সখ্য গড়ে ওঠে। এর জেরে কাবেরি ও স্বামীর মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। এরপর কাবেরি ও রুপমের বিয়ে হয়।

রাজীবের অভিযোগ, রুপম তাঁর বোনকে হত্যা করে গয়না ও টাকা নিয়ে পালিয়ে যান। তিনি আরও অভিযোগ করেন, কেরানীগঞ্জে কাবেরির ফ্ল্যাট ছিল। রুপম তা কাবেরিকে দিয়ে বিক্রি করিয়ে ৩৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন। রুপম বেকার।

এক ভাই, দুই বোনের মধ্যে দ্বিতীয় কাবেরি। কাবেরি ও তাঁর আগের স্বামীর ঘরে এক ছেলে (৬) ও এক মেয়ে (১১) ছিল। শিশু দুটি মায়ের সঙ্গেই থাকত।

লালবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অজয় কৃষ্ণ বলেন, জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯–এ ফোন পেয়ে আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওই নার্সের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় কাবেরিকে উদ্ধার করেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। পরে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। তাঁর গলায় অর্ধচন্দ্রাকৃতির কালো দাগ পাওয়া গেছে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন