বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এর আগে গত ১৩ ডিসেম্বর হাইকোর্ট মামলার তদন্ত কার্যক্রমের বৈধতা নিয়ে শহিদুল আলমের রিট খারিজ (রুল ডিসচার্জ) করে রায় দেন। মামলার তদন্ত কার্যক্রম স্থগিত চেয়ে ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেন শহিদুল আলম। আবেদনটি চেম্বার আদালত হয়ে আজ আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য ওঠে।

আদালতে শহিদুল আলমের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী সারা হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন।

২০০৬ সালের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় শহিদুল আলমের বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের ৬ আগস্ট রমনা থানায় ওই মামলা হয়। মামলায় ১০৭ দিন কারাভোগের পর শহিদুল আলম ওই বছরের ২০ নভেম্বর জামিনে মুক্তি পান। ২০১৮ সালের অক্টোবরে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়। এ অবস্থায় ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে থাকা ওই মামলার তদন্ত কার্যক্রমের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে শহিদুল আলম ২০১৯ সালের মার্চে রিট করেন। ওই বছরের ১৪ মার্চ হাইকোর্ট রুল দিয়ে তদন্ত কার্যক্রমের ওপর অন্তব৴র্তীকালীন স্থগিতাদেশ দেন। রুলের ওপর শুনানি শেষে গত ১৩ ডিসেম্বর হাইকোর্ট রায় দেন।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন