বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কর্মসূচির বিষয়ে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘সরকারি, আধা সরকারি, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মশকনিধন ও পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। কয়েক দিন পরই আমাদের সন্তানেরা স্কুলে আসবে। তাদের শিক্ষার জন্য চাই সুষ্ঠু পরিবেশ। নগরপিতা হিসেবে সেই সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি করে দেওয়া আমার দায়িত্ব।’

মেয়র বলেন, আজ থেকে শুক্রবার পর্যন্ত ডিএনসিসি এলাকার সাড়ে চার শ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই কর্মসূচি চালানো হবে। যদি কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাদ পড়ে, তাহলে সবার ঢাকা অ্যাপের মাধ্যমে জানিয়ে দিলে সেই প্রতিষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড থেকে মশককর্মী ও পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা ওই প্রতিষ্ঠানে পৌঁছে যাবেন। এ ছাড়া ০৯৬০২২২২৩৩৩ ও ০৯৬০২২২২৩৩৪ হটলাইন নম্বরে সরাসরি কল করে জানালেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

default-image

৪৭টি স্কুলে করোনার গণটিকার কর্মসূচি চলছে জানিয়ে মেয়র বলেন, যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে করোনার দ্বিতীয় ডোজের টিকাকেন্দ্র আছে, ওই স্কুলে ১১ সেপ্টেম্বর পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চালানো হবে।

অভিভাবকদের সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মেয়র বলেন, নিজ নিজ বাচ্চাদের মাস্কের ব্যবহার শেখান। মাস্ক ছাড়া সন্তাকে স্কুলে পাঠাবেন না। এ ছাড়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার যেসব নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, সেগুলো মেনে চলারও আহ্বান জানান তিনি।

default-image

মেয়রের বক্তব্যের আগে গুলশান মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের আঙিনায় অভিযানে গিয়ে নির্মাণাধীন একটি ভবনের লিফটের জায়গায় জমে থাকা পানিতে প্রচুর লার্ভা পাওয়া যায়। পরবর্তী সময়ে কীটনাশক ছিটিয়ে লার্ভা নিধন করা হয়। এ ছাড়া ওই নির্মাণাধীন ভবনের ছাদেও পানি জমে ছিল। সেখানেও কীটনাশক ছিটানো হয়।
কর্মসূচির উদ্বোধনীতে ডিএনসিসি প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুহ আমিরুল ইসলাম, গুলশান মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোস্তফা জামান উপস্থিত ছিলেন।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন