default-image

এক দিনে পাঁচ প্রতিষ্ঠানে করোনাভাইরাস পরীক্ষার অনুমোদন বাতিল করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। আলাদা পাঁচটি চিঠিতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনুমোদন বাতিলের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানগুলো হলো কেয়ার মেডিকেল কলেজ হসপিটাল, সাহাবুদ্দীন মেডিকেল কলেজ হসপিটাল, স্টেমজ হেলথ কেয়ার, থাইরোকেয়ার ডায়াগনস্টিক এবং চট্টগ্রামের এপিক হেলথ কেয়ার। এর মধ্যে স্টেমজ হেলথ কেয়ারকে কাতারের ভিসা প্রত্যাশীদের জন্য নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছিল।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা সুলতানা চিঠিতে বলেছেন, ওই হাসপাতাল/ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে কোভিড-১৯ আরটি-পিসিআর ল্যাবরেটরি পরীক্ষার অনুমোদন দেওয়া হলেও এখন পর্যন্ত কাজ শুরু করতে ব্যর্থ হয়েছে। সে জন্য কোভিড-৯ আরটিপিসিআর পরীক্ষার অনুমোদন সাময়িকভাবে স্থগিত করা হলো।

ওই চিঠিতে আরও বলা হয়, হাসপাতাল/ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ল্যাবরেটরি কোভিড-১৯ আরটিপিসিআর পরীক্ষার প্রস্তুতি চূড়ান্ত করে আবারও অধিদপ্তরে অনুমোদনের জন্য আবেদন করতে হবে। আরটিপিসিআর ও আমদানি করা কীটের অনাপত্তি পত্র ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর থেকে নিতে হবে। অধিদপ্তর সরেজমিনে পরিদর্শন শেষে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।

জেকেজি হেলথ কেয়ার ও রিজেন্ট হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষা নিয়ে জালিয়াতির পর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0