default-image

জাতীয় পার্টির প্রয়াত চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের ছেলে এরিক এরশাদের যত্ন ঠিকমতো হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন মা বিদিশা। এরিকের ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

আজ শুক্রবার রাতে বিদিশা প্রথম আলোকে বলেন, এরিককে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়েছে। তাঁকে দেখাশোনা করছে না কেউ। অটিস্টিক এরিককে খারাপভাবে রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার এরিক তাঁকে ফোন করে বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসায় আসতে বলেন।

এরিক এখন বারিধারায় বাবা এইচ এম এরশাদের বাসভবন ‘প্রেসিডেন্ট পার্কে’ অবস্থান করছেন। বিদিশা প্রয়াত এইচ এম এরশাদের দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলা হচ্ছে বিদিশা ও এরিককে ওই বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে বিদিশা বলেন, ‘বিষয়টা তেমন নয়। তবে বাইরে থেকে অন্য কাউকে বাসায় ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।'

বিদিশা অভিযোগ করেন, এরিক তাঁকে জানিয়েছেন, ওই বাসার এক গাড়িচালক তাঁকে (এরিক) মারধর করেছে৷ কেউ তাঁকে একবেলার বেশি খেতে দেয় না। তবে বিদিশা এও বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি প্রেসিডেন্ট পার্কে যান, তখন কেউ তাঁকে বাধা দেয়নি।

বিদিশা বলেন, এরিক নোংরা পরিবেশে থাকছিল। গৃহকর্মীরা নিজেদের মতো করে থাকে, এরিককে দেখার মতো কেউ এ বাসায় নেই। এরিক তাঁকে (বিদিশা) আসার পর যেতে দেননি এবং সঙ্গে থাকতে বলেন। 

নিজেকে এরিকের আইনগত অভিভাবক দাবি করে বিদিশা বলেন, ‘আমি এরিকের সঙ্গে থাকতে চাই, আমি ওর আইনত অভিভাবক (লিগ্যাল গার্ডিয়ান)।’  তিনি বলেন, এরিক আমাকে এখানে থাকতে বললে থাকব, আর যদি আমার সঙ্গে গুলশান যেতে চায় তাহলে সেখানে নিয়ে যাব।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন