এল কেনাকাটার দিন

বিজ্ঞাপন
default-image

ফেব্রুয়ারির সব কটি দিন মেলা হয়। তবে একুশে ফেব্রুয়ারির দিনটি থাকে অন্য রকম। প্রভাতফেরিতে অংশ নিয়ে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের পর অনেকেই চলে আসেন মেলায়। অফিস-শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় বহু মানুষ মেলায় আসতে পারেন। গতকাল শুক্রবারও এর ব্যতিক্রম হয়নি। মেলায় ঢোকার জন্য মানুষের সারি টিএসসি, চারুকলা ছাড়িয়ে শাহবাগ মোড় পৌঁছেছিল একপর্যায়ে।

কিন্তু মেলার বিক্রি অন্য দিনের চেয়ে খুব একটা আলাদা নয়; বরং ভিড়ের তুলনায় বিক্রি তেমন সন্তোষজনক ছিল না। গতকাল দিনটি ছিল তরুণদের। অসীম ধৈর্য নিয়ে তাঁরা গুটি গুটি পায়ে মেলায় প্রবেশ করেছেন। এদিক-ওদিক ঘোরাফেরা করেছেন, আড্ডা দিয়েছেন। বিকেল থেকে বাড়তে থাকে ভিড়, সন্ধ্যায় বাঁধভাঙা জোয়ারের রূপ নেয়।

গতকাল মেলার দর্শনার্থীদের পোশাকেও ছিল স্বাতন্ত্র্য। বেশির ভাগ এসেছিলেন পাজামা-পাঞ্জাবি কিংবা শাড়ি পরে। মেলায় ঢোকার জন্য দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা এবং ভেতরের ভিড়ে অনেকেই বিরক্ত হয়েছেন। যে কারণে বাছাই করে বই কেনায় মনোযোগও ছিল কম। মোহাম্মদপুর থেকে আসা যুবক বেলাল হোসেনের সঙ্গে কথা হলো বিকেলে। জানালেন, এ নিয়ে দুই দিন মেলায় এসেছেন। তবে এত দিন শুধু তালিকা সংগ্রহ করেছেন। সে তালিকা ধরে আজ কিনে ফেলবেন বই।

কাল বিক্রিতে মন না ভরলেও প্রকাশকেরা আশা করছেন, আজ শনিবার থেকে মেলায় বিক্রি বাড়বে। হাতে আছে আর আট দিন। মূলত এই কয়েক দিনে বই বিক্রি বেশি হবে। এ সময়টায় মূলত পাঠকেরাই আসবেন মেলায়, এমনটাই বললেন অন্যপ্রকাশের প্রধান নির্বাহী মাজহারুল ইসলাম। একই সঙ্গে জানালেন, মেলায় এসেছে তাঁর নিজের লেখা গল্পগ্রন্থ জালাল মাস্টারের সংসার

 গতকাল পর্যন্ত মেলায় এসেছে ৩ হাজার ৩৮৯টি নতুন বই। শুক্রবার মেলার ২০তম দিনে এসেছে রেকর্ডসংখ্যক নতুন বই, ৫০৮টি। মেলায় প্রথমা প্রকাশন এনেছে রায়হান রাইন অনূদিত ব্রোঞ্জের মৌমাছি ও অন্যান্য: বিশ্বসাহিত্যের নির্বাচিত ছোটগল্প। জার্নিম্যান বুকস এনেছে নাজনীন হক মিমির ৬৯-এর শহীদ সার্জেন্ট। চন্দ্রাবতী একাডেমি এনেছে পারভেজ হোসেনের একরাতে হঠাৎ। কথাপ্রকাশ এনেছে রেজানুর রহমানের আবাসভূমি। অন্যধারা এনেছে সোহরাব হাসানের ২০১৮: নির্বাচনের আগে-পরে। সংহতি এনেছে মোহাম্মদ আবদুল বাছিতের উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা: সংকটের স্বরূপ এবং উত্তরণে করণীয়। অ্যাডর্ন পাবলিকেশনস এনেছে শহীদুল্লাহ ফরায়জীর ঐশ্বরিক অক্ষর। অনন্যা এনেছে
আসিফ মেহ্দীর বধির নিরবধি। সূচয়নী পাবলিশার্স এনেছে মামুন খানের সপ্তর্ষি। মিজান পাবলিশার্স এনেছে সৈয়দ মুহাম্মদ জুবায়েরের কাল্পনিক বাস্তবতা

আজ  বেলা ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত মেলায় থাকবে শিশু প্রহর। নতুন বই কেনা, দেখার জন্য আজ মেলা চলবে বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন